ঢাকা, বুধবার 25 April 2018, ১২ বৈশাখ ১৪২৫, ৮ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীদের সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ

চট্টগ্রাম ব্যুরো : ১৫ মের মধ্যে চট্টগ্রামসহ পাঁচ জেলার পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীদের সরিয়ে নিতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছে সরকার। রোববার চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে ‘পাহাড় ধস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও আগাম সতর্কতামূলক কার্যক্রম সংক্রান্ত কর্মশালা’র সভাপতি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল এই নির্দেশনার কথা জানান। আগামী ১৫ মের মধ্যে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরকে সমন্বয় করে পাহাড়ে অবৈধভাবে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের উচ্ছেদের কথা বলেন তিনি।
কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন,বাংলাদেশ দুর্যোগপ্রবণ দেশ। ইচ্ছে করলে আমরা অনেক কিছু করতে পারি না, পারব না। যদি মন পরিষ্কার থাকে বা কাজ করার মতো সাহস থাকে, আমরা অনেক কিছু করতে পারি। সে জায়গায় আমরা যাব কি না সেটাই কথা।
কর্মশালায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শামসুদ্দোহা জানান, ৩৬টি পাহাড় তাদের এলাকায় আছে। করপোরেশনের প্রধান নির্বাহীর তথ্য সংশোধন করে এসময় মন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের হিসেবে ১৮টি পাহাড়ে ৬৮৪ পরিবার ঝুঁকিতে বাস করে। এসব পরিবারকে সরানো ছয় ঘণ্টার কাজ বলে মন্তব্য করেন তিনি।
বর্ষা মৌসুমের শুরুতে প্রতিবছর পাহাড়ে অবৈধ বসতি উচ্ছেদে গিয়ে বাঁধার মুখে পড়তে হয় জেলা প্রশাসন ও পুলিশকে।
গতবছর ঘটে যাওয়া পাঁচটি দুর্যোগের মধ্যে দুইটি বৃহত্তর চট্টগ্রামে হয়েছে উল্লেখ করে তা মোকাবেলার কথাও জানান মন্ত্রী। পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে অবৈধ বসবাসকারীদের উচ্ছেদ করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন মন্ত্রী। দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা দায়িত্ব নিয়ে কাজ করে না বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ নেতা মায়া।
সভাপতির বক্তব্যে সচিব জানান, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি জেলায় বিভিন্ন পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে মানুষ বসবাস করছে।
সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী মো. শামসুদ্দোহা জেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযানে তাদের সহায়তা দেওয়ার কথা বললে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সচিব। তিনি সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “অন্যের কাঁধে চাপাও কেন? এটা (উচ্ছেদ) করার দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের। জেলা প্রশাসন সহায়তা করবে।”
প্রাকৃতিক দুর্যোগ, পাহাড় ও ভূমি ধস মোকাবিলায় জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় চট্টগ্রাম, বান্দরবান, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও কক্সবাজারের ৩৫ উপজেলায় শোভাযাত্রা, কর্মশালা ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা করবে।
তারই অংশ হিসেবে চট্টগ্রামে শোভাযাত্রা, কর্মশালা ও জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় মন্ত্রী ১০৯০ নম্বরে মোবাইল থেকে ফোন করে প্রতিদিনের আবহাওয়া বার্তা জানতে অনুরোধ করেন উপস্থিত অতিথিদের।
কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার শঙ্কর রঞ্জন সাহা, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন) মাসুদ উল হাসান, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন আজিজুর রহমান সিদ্দিকী। কর্মশালায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত সচিব মো. মহসীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ