ঢাকা, বৃহস্পতিবার 26 April 2018, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫, ৯ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ভারতে পাচারের সময় চুয়াডাঙ্গায় ১৬ কোটি টাকার ৩৭ কেজি স্বর্ণ আটক

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : চুয়াডাঙ্গাস্থ-৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সদস্যরা চুয়াডাঙ্গার দর্শনা নাস্তিপুর সীমান্ত পথে ভারতে পাচারের সময় ৩৭ কেজি স্বর্ণের বার আটক করেছে। গতকাল বুুধবার দুপুরে নাস্তিপুর সোলজারঘাট থেকে এই বিরাট স্বর্ণের চালান আটক করে। এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি।
বিজিবি সুত্রে জানা যায়,  বেশ কিছুদিন পূর্ব থেকে বিজিবির নিকট তথ্য ছিল এ সীমান্ত দিয়ে বড় ধরনের স্বর্ণের চালান পাচার হবে। সেই থেকেই সীমান্তে বিজিবির সতর্ক প্রহরা চলছিল। গতকাল দুপুর ১টা ৪০ মিনিটের সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টহল দেবারকালে দর্শনা সীমান্তের নাস্তিপুর গ্রামের সোলজারঘাটে চোরাকারবারীদের দেখে বিজিবি সদস্যরা ধাওয়া করলে চোরাকারবারীরা ৩টি বস্তা পানিতে ফেলে পালিয়ে যায়। এ সময় বিজিবি সদস্যরা উক্ত ৩ বস্তা উদ্ধার করে। পরে বিজিবির কুষ্টিয়াস্থ সেক্টর কমান্ডার আরশাদ হোসেন, চুয়াডাঙ্গাস্থ-৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক ইমাম হাসানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে দেখা যায় ৩টি বস্তায় ৩৬ কেজি ৯২৮ গ্রাম ওজনের ৩২০টি স্বর্ণের বার রয়েছে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১৬ কোটি টাকা। আটককৃত স্বর্ণ ভারেতে পাচারের উদ্দেশ্যে সীমান্তে নেয় হয়েছিল। স্বর্ণ আটককালে বিজিবির এক সদস্য আহত হয়। বিষয়টি চুয়াডাঙ্গাস্থ-৬ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক ইমাম হাসান দৈনিক সংগ্রামকে নিশ্চিত করেছেন।
উল্লেখ্য, ইতিপূর্বেও বিজিবি কতৃক এ ধরনের বড় বড় চালান আটক হলেও বহনকারী ছাড়া মূল চোরাকারবারীরা সব সময় ধরা ছোঁয়ার বাইরেই থেকে গেছে। যে কারনে চুয়াডাঙ্গার বিভিন্ন সীমান্ত পথে স্বর্ণ পাচার বন্ধ হচ্ছেনা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ