ঢাকা, শনিবার 28 April 2018, ১৫ বৈশাখ ১৪২৫, ১১ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শুক্রবার ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন প্রার্থীরা

গাজীপুর থেকে মোঃ রেজাউল বারী বাবুল : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এবারের নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের পর প্রথম শুক্রবার প্রার্থীগণ গণসংযোগ,  বৈঠক আর মিছিল সমাবেশ করে ব্যস্ত দিন কাটিয়েছেন। জুম্মাবার হওয়ায় এদিন প্রার্থীরা তাদের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে নির্বাচনী এলাকায় বিভিন্ন মসজিদে জুম্মার নামায আদায় করেছেন। এসময় তারা মুসুল্লীদের সঙ্গে কুশলাদি বিনিময় করেছেন এবং ভোট ও দোয়া চেয়েছেন। দিনটি সরকারী ছুটির দিন হওয়ায় প্রার্থীদের সমর্থনে দিনভর তারা ভোটারদের বাড়ি, শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভিড় জমিয়েছেন এবং নানা আশার বাণী শুনিয়ে সমর্থণ আদায়ের চেষ্টা করেছেন। বিশেষ করে প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের মেয়র প্রার্থীর কর্মী সমর্থকরা ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে বিভিন্ন এলাকায় দিনভর গণসংযোগ করেছেন। দলীয় প্রার্থীর গণসংযোগে একাধিক কেন্দ্রীয় নেতাও অংশ নিয়েছেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের পদচারণায় ইতোমধ্যে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন জমে উঠেছে।
বিএনপি নির্বাহী কমিটি সদস্য ও মিডিয়া সেলের প্রধান ডা মাজহারুল আলম জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ধানের শীষ প্রতীকের নির্বাচনী প্রচারণায় শুক্রবার ২০ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেন। জোটপ্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত নিজ বাসভবনে স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে নির্বাচনী প্রস্তুতি বিষয়ক আলোচনা করেন। এসময় ড্যাব মহাসচিব অধ্যাপক ডা এ জেড এম জাহিদ, অধ্যাপক ডা মোস্তাক রহিম স্বপন, অধ্যাপক ডা রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, ডা এবিএম মূসা, ডা এম এ কামাল, ডা মো আবুল কালাম, ডা মো শফিকুল ইসলাম, ডা মো শরিফুল ইসলাম, ডা মো সালমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এর পর সকাল ১০ টার দিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে খাইলকৈরের নিজের প্রতিষ্ঠিত বাদশা মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন আপন মার্কেটে পথসভার মধ্য দিয়ে দিনের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। তিনি গাছার বাদশা মিয়া স্কুল, আপন বাজার, হিন্দু বাড়ীর মোড়, ডেগের চালা, বটতলা, মৈরানসহ বিভিন্নস্পটে ব্যপক গণসংযোগ ও পথসভা করেছেন। তিনি স্থানীয় ডেগেরচালা জামতলা এলাকার জামে মসজিদে নামাজ আদায় করেন। এসময় তিনি মুসল্লীদের সঙ্গে কুশলাদি বিনিময় করেন এবং ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেন। এদিন সকাল হতেই বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান দলের নেতা কর্মীদের নিয়ে শুক্রবার গাজীপুরের টংগী ও গাছার বিভিন্ন ওয়ার্ডে মেয়র পদে ধানের শীষের প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের পক্ষে গণসংযোগ করেছেন। পরে সেখান থেকে তিনি গাছার ৩৮নং ওয়ার্ডের বটতলায় মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের সঙ্গে মিলিত হয়ে গণসংযোগে অংশ নেন। এসময় তিনি এক পথ সভায় বক্তব্য রাখেন। এদিকে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল (অবঃ) আলতাফ হোসেন, নির্বাচন পরিচালনা প্রধান ফজলুল হক মিলন ও মিডিয়া সেল প্রধান ডা মাজহারুল আলম, পৌর বিএনপি সভাপতি মীর হালিমুজ্জামান ননী গাজীপুর শহরের জোড় পুকুর এলাকায় দলের নেতা কর্মীদের সঙ্গে ঘরোয়া নির্বাচনী সভা করেছেন।
এদিকে সকাল থেকেই ঘরোয়া  বৈঠক আর গণসংযোগ করে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম। তিনি সকালে হাজীর পুকুর এলাকায় দলের নেতা-কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে বৈঠক করে নির্বাচনী প্রচারণা সম্পর্কে নানা পরামর্শ দেন। পরে তিনি দলের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে গাছা, বোর্ডবাজার, শরীফপুর, বাদেকলমেশ্বর, বড়বাড়ি, তারগাছ, আইইউটিসহ বিভিন্ন এলাকায় দিনভর গণসংযোগ করেন। এসময় তিনি ভোটারদের খোঁজ খবর নেন এবং নানা আশার বাণী শুনিয়ে ভোটারদের কাছে তাদের ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেন। গণসংযোগকালে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠণিক সম্পাদক আহাম্মদ হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সাবেক সংসদ সদস্য কাজী মোজাম্মেল হক, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ মহি উদ্দিন, কাজী ইলিয়াস, এসমএম মোকসেদ আলমসহ প্রমূখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় অনুষ্ঠিত পথসভায় মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, নির্বাচন হবে উৎসবমুখর পরিবেশে সাধারণ মানুষ ঝাপিয়ে পড়েছে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে। আমরা চাই একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিয়ে সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে হবে। আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বোর্ড বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। নামাজের পর তিনি মুসল্লীদের নিকট নৌকা মাকায় ভোট চান। বিকেলে তিনি সিটি কর্পোরেশনের ৩৫,৩৬ ও ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডে গনসংযোগ ও পথসভায় এলাকাবাসির নিকট নৌকা মাকায় ভোট প্রার্থনা করেন।
এদিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইসলামী ঐক্যজোট মনোনীত অপর মেয়র প্রার্থী কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মোফজলুর রহমান শুক্রবার চান্দনা চৌরাস্তা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। এসময় তিনি মুসুল্লিদের সঙ্গে মত বিনিময় এবং মিনার প্রতীকে ভোট ও দোয়া চান। এ ছাড়াও তিনি টঙ্গী বাজার, কলেজ গেট, চেরাগ আলী, স্টেশন রোড কোনাবাড়ি, কাশিমপুরসহ সিটির বিভন্ন এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগ করেন এবং ভোটারদের কাছে দোয়া ও ভোট চান।
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এবারের নির্বাচনের অন্য প্রার্থীরা দিনভর গণসংযোগ করে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন। নারী পুরুষ কর্মী সমর্থকরা ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে দিনভর গণসংযোগ ও সমাবেশ করেছেন।
বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সমন্বয়কারীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে গাজীপুর সাবেক পৌর এলাকার ভোট কেন্দ্রের সমন্বয়কারীদের এক কর্মশালা শহরের দক্ষিণ ছায়াবীথিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি একেএম ফজলুল হক মিলন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আলতাফ হোসেন চৌধুরী। কর্মশালায় বাংলাদেশ লেবার পার্টির সভাপতি ডা মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মেজর মিজানুর রহমান, ডা মাজহারুল আলম, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আফজাল হোসেন কায়সার, আহাম্মদ আলী রুশদী, সাবেক পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ মীর হালিমুজ্জামান ননী, জেলা যুগ্ম সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন সবুজ, কাজী মাহবুবুল উল হক গোলাপ, বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ, গাজীপুর জেলার সভাপতি অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক অধ্যপক আসাদুজ্জামান আকাশ, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির মহানগর সভাপতি প্রিন্সিপাল হুমায়ুন কবির, লেবার পার্টি মহানগরের সভাপতি আহসান হাবিব ইমরুজ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ মোল্লা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এসকে জবি উল্লাহ, কৃষকদল মহানগর সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মেহেদী হাসান এলিসসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ