ঢাকা, সোমবার 30 April 2018, ১৭ বৈশাখ ১৪২৫, ১৩ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

লাইভ সম্প্রচারে স্বল্পবসনা নারী রেসলার প্রশ্নে ক্ষমা চাইলেন সৌদি কর্তৃপক্ষ

২৯ এপ্রিল, বিবিসি : সৌদি আরবের টেলিভিশনে প্রথবারের মতো লাইভ রেসলিং সম্প্রচারের সময় হঠাৎ পর্দায় স্বল্পবসনা নারী রেসলারের উপস্থিতি দেখা যাওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ।ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্ট জেদ্দায় এ ম্যাচ আয়োজন করেছিল। সৌদি আরব ও ইরানের দুই দেশের প্রতিযোগী লড়েন ম্যাচটিতে। জিতেছেন অবশ্য সৌদি কুস্তিগির।দর্শক সারিতে নারী-পুরুষ উভয়েই উপস্থিত ছিলেন। যদিও কোনো নারী রেসলার লড়াইয়ে অংশ নেননি।বিজ্ঞাপনের সময় সংক্ষিপ্ত পোশাক পরা নারী রেসলারদের দেখানো শুরু হলে সম্প্রচার বন্ধ করে দেয় রাষ্ট্রীয় টিভি।কিন্তু কুস্তি চলাকালীন অডিটরিয়ামের বড় টিভি স্ক্রিনে সে দৃশ্য তৎক্ষণাৎ বন্ধ করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। ফলে রেসলিং অ্যারেনায় উপস্থিত সবাই সে দৃশ্য দেখতে পান।এই অশ্লীল দৃশ্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছে সৌদি জেনারেল স্পোর্টস কর্তৃপক্ষ।রেসলিং বা কুস্তি সৌদি আরবের সমাজের জন্য একসময় প্রায় অপরিচিত একটি ব্যাপার ছিল। যদিও মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য দেশে কুস্তি বা রেসলিং খুবই জনপ্রিয় একটি খেলা।গত বছর দুয়েক ধরে একটু একটু করে এ ধরনের বিনোদনের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেয়া হচ্ছে দেশটির সমাজকে।যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান দেশটির সমাজে যে পরিবর্তন আনার নানা উদ্যোগ নিয়েছেন, এটিও তারই অংশ।শুক্রবারের ওই ম্যাচ দেখার জন্য অডিটরিয়ামে নারীসহ ৬০ হাজার দর্শক উপস্থিত ছিলেন।দেশটিতে নারীরা ইতিমধ্যেই ফুটবল খেলার অনুমতি পেয়েছেন। তবে এর আগে নারী রেসলারদের অংশগ্রহণের সুযোগ না রাখায় ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্টের সমালোচনা করেন অনেকে।আর ওই ম্যাচটি নিয়ে দেশটির সামাজিকমাধ্যমে বেশ সরব ছিল।

ম্যাচ চলাকালে অডিটরিয়ামের ভেতরে ইরানের পতাকা ওড়াতে দেখা গেলেও তাতে কর্তৃপক্ষ বাধা দেয়নি। অনেকে এ ব্যাপারটির প্রশংসা করে পোস্ট দিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ