ঢাকা, শুক্রবার 4 May 2018, ২১ বৈশাখ ১৪২৫, ১৭ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মাস্টার্স ক্রিকেটে ফাইনালের দ্বারপ্রান্তে রাজশাহী মাস্টার্স

 

রফিকুল ইসলাম মিঞা, কক্সবাজার থেকে : মাস্টার্স ক্রিকেট কার্নিভালে টানা তৃতীয় জয়ে প্রায় ফাইনাল নিশ্চিত করেছে এয়ার এশিয়া রাজশাহী মাস্টার্স। সাবেক ক্রিকেটারদের নিয়ে আয়েজিত এই ক্রিকেট কার্নিভালের প্রথম দিনেই সিলেট মাস্টার্সকে ৬ উইকেটে উইকেটে হারিয়ে জয় যাত্রা শুরু করেছিল রাজশাহী মাস্টার্স। গতকাল দলটি দুটি ম্যাচ খেলে দুটি ম্যাচেই জয় নিয়ে টানা তৃতীয় জয়ে প্রায় ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। গতকাল শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রাজশাহী প্রথম ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকা মাস্টার্সকে ৪ রানে হারিয়ে জয় পাওয়ার পর দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে রাজশাহী ৮ উইকেটে হারায় র’নেশনস খুলানাকে। এছাড়া দিনের অপর ম্যাচে জয় পেয়েছে চট্টগ্রাম মাস্টার্স। চট্টগ্রাম মাস্টার্স ৪৩ রানে হারায় সিলেট মাস্টার্সকে। গতকাল দিনের প্রথম ম্যাচে জয় পায় এয়ার এশিয়া রাজশাহী মাস্টার্স। খালেদ মাসুদ পাইলটের নেতৃত্বাধীন দলটি ৪ রানে হারিয়েছে খালেদ মাহমুদ সুজনের নেতৃত্বাধীন বেক্সিমকো ঢাকা মাস্টার্সকে।

টস জিতে আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১ রানেই প্রথম উইকেট হারায় রাজশাহী। তবে ওয়াসেল উদ্দিন আহমেদ ও খালেদ মাসুদ পাইলট উভয়ের ২৮ করে রানের পর আনিসুর রহমানের ২৫ রানের সুবাদে নির্ধারিত ১০০ বলে ৭ উইকেট হারিয়ে ১১৪ রান সংগ্রহ করে দলটি। সজল চৌধুরি ২৩ রানে ৩ উইকেট শিকার করেন। জয়ের জন্য ১১৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে নির্ধারিত ১০০ বলে ৯ উইকেটে ১১০ রান করতে সক্ষম হয় ঢাকা। দলের পক্ষে সজল চৌধুরি সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন। এছাড়া রাশিদুল হক সুমন ২০ ও ফয়সাল হোসেন ডিকেন্স করেন ১৫ রন। রাজশাহীর পক্ষে মুশফিকুর রহমান ২০ রানে সর্বোচ্চ ৩ উইওেকট শিকার করেন। ম্যাচ সেরা হয়েছেন রাজশাহীর ওয়াসেল উদ্দিন আহমেদ। একই মাঠে দ্বিতীয় বার ম্যাচ খেলতে নামে রাজশাহী মাস্টার্স। আর রাজশাহী আট উইকেটে খুলনাকে হারিয়ে টানা তৃতীয় জয় নিয়ে প্রায় ফাইনাল নিশ্চিত করে। এই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ১৬ ওভাওে আট উইকেট হারিয়ে ১১২ রান সংগ্রহ করে ঢাকা মাস্টার্স। দলের পক্ষে ওপেনার জামাল উদ্দিন ৬১ রানে অপরাজিত ছিলেন। রাজশাহীর পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন এনামুল হক মনি, নিয়াজ মোর্শেদ নাহিদ ও ওয়াসেলউদ্দিন। জয়ের জন্য ১১৩ রানের টার্গেট ছিল রাজশাহীর সামনে। আর ব্যাটিংয়ে নেমে মুশফিক বাবু ও আনিসুর রহমনের তৃতীয় মউইকেট জুটির ১১০ রানে শেষ ওভার হাতে রেখেই ১১৫ রান করে রাজশাহী। ফলে ৮ উইকেটে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি। টার্গেট রান করতে দলটিকে হারাতে হয়েছে মাত্র ২টি উইকেট। এই জয় দিয়েই টানা তিনটি জয় পেল দলটি।

দিনের অপর মাঠে টস জিতে চট্টগ্রাম আগে ব্যাট করে ৯ উইকেটে করে ১৪৬ রান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন আজম ইকবাল। এছাড়া দলের পক্ষে আকরাম খান আর মাসুদুর রহমান মুকুল উভয়েই করেন ৩৩ রান করে। সিলেটের পক্ষে সাইফুল ইসলাম ২৯ রানে নেন ৩ উইকেট। জয়ের জন্য ১৪৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে সিলেট মাস্টার্স ৭ উইকেটে ১০৩ রান করলে চট্টগ্রাম জয় পায় ৪৩ রানে। সিলেটের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩১ রান করেন সঞ্জয় চৌধুরী। চট্টগ্রামের পক্ষে মাসুদুর রহমান মুকুল নেন তিন উইকেট। ম্যচ সেরাও হন মুকুল। এই হারে টানা দুই ম্যাচই হারল সিলেট মাস্টার্স।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ