ঢাকা, শুক্রবার 4 May 2018, ২১ বৈশাখ ১৪২৫, ১৭ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চলনবিলে ভুট্টার বাম্পার ফলন : দাম ভালো পাওয়ায় কৃষকরা খুশি

চলনবিলে ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। ছবিতে ভুট্টা শুকানোর কাজে ব্যস্ত কৃষকরা। ছবিটি দুড়মনিকা গ্রামের মাঠ থেকে তোলা

আবু জাফর সিদ্দিকী, সিংড়া (নাটোর): শষ্য ভান্ডার খ্যাত চলনবিলের সিংড়ায় এবার ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। এদিকে বাম্পার ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় খুশি চলনবিলের কৃষকরা। চলতি মৌসুমে উপজেলার ডাহিয়া, ইটালি, তাজপুর, শেরকোল ইউনিয়নে সবচেয়ে বেশি ভুট্টার আবাদ হয়েছে। যার মধ্যে প্রফেট,এসকে ৪০, প্যাসিফিক, মুকুট, এলিট, সুপার ফাইন জাতের ভুট্টার আবাদ বেশি হয়েছে। এছাড়াও চৌগ্রাম, হাতিয়ানদহ, চামারী ও লালোর ইউনিয়নে তুলনামূলক ভাবে ভুট্টার আবাদ হয়েছে। বিঘা প্রতি ৩৮-৪০মন ভুট্টার ফলন পাওয়া যাচ্ছে। চলনবিলে উৎপাদিত এসব ভুট্টা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যাচ্ছে। তবে এ বছর স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার পানি নামতে দেরি হওয়ায় অনেক কৃষক ভুট্টার আবাদ করতে পারেননি। এ ক্ষেত্রে গত বছরের তুলনায় এবার উপজেলায় ভুট্টার আবাদ কম হয়েছে।

উপজেলা কৃষি অধিদফতরের দেয়া তথ্যানুযায়ী, এ বছর উপজেলায় ৮শ হেক্টর জমিতে ভুট্টার আবাদ হয়েছে। গত বছর ১হাজার হেক্টর জমিতে ভুট্টার আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫০ হেক্টর জমিতে ভুট্টার আবাদ বেশি হয়েছিল। 

জানা যায়, শস্য ভান্ডারখ্যাত চলনবিলের সিংড়া উপজেলার কৃষকরা বোরো ধানের পাশাপাশি গত কয়েক বছর ধরে ভুট্টা আবাদ করেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ভুট্টা আবাদের উপর তেমন প্রভাব পরে না এবং সার তেল সহ অন্যান্য খরচ কম হওয়ার কারণে ভুট্টা চাষে কৃষকরা দিনদিন ভুট্টা আবাদে আগ্রহী হয়ে উঠছে। গত বছর আগাম বন্যায় ফসলের কিছুটা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিল কৃষকরা। কিন্তু বাম্পার ফলন ও কাঙ্খিত বাজার মূল্য পাওয়ায় সেই ক্ষতি কৃষকদের পুষিয়ে গিয়েছিল। এ বছর স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার পানি নামতে দেরি হওয়ায় অনেক কৃষক ভুট্টার আবাদ করতে পারেনি। উপজেলার ৮শ হেক্টর জমিতে ভুট্টার আবাদ হয়েছে। এবারও ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। বাজারে কাঁচাভেজা ভুট্টা প্রতি মণ ৫১০ টাকা থেকে ৫২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

শুকনো ভুট্টা প্রতি মণ ৭৮০ টাকা থেকে ৮৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। একেবারে শুকনো ভুট্টা প্রতি মন ৯০০-১০০০ টাকা দরেরও বিক্রি হচ্ছে। এতে গতবারের চেয়ে বেশি দাম পাওয়ায় কৃষকরা খুশি। গত বছর কাঁচাভেজা ভুট্টা প্রতি মণ ৪২০ টাকা থেকে ৫শ টাকা ও শুকনো ভুট্টা প্রতি মণ ৬৫০ টাকা থেকে ৭শ টাকা দরে বিক্রি হয়েছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ