বুধবার ১৬ জুন ২০১০
Online Edition

সংক্ষিপ্ত খবর

ট্রেনে কেটে মা-মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : সম্প্রতি কুষ্টিয়ার মিরপুরে ট্রেনে কেটে মা-মেয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মিরপুর উপজেলার হালসা স্টেশনের নিকট শাকদহচর রেল লাইনের ওপর এ ঘটনা ঘটে।পুলিশ জানায়, মিরপুর উপজেলার হালসা রেল স্টেশনের আধাকিলোমিটার উত্তরে শাকদহচর গ্রামের রেল লাইনের ওপর খড়ি কুড়াচ্ছিলো ওই গ্রামের আব্দুস সাত্তারের স্ত্রী কমেলা খাতুনসহ তার ২ সন্তান। এমন সময় গোয়ালন্দ থেকে খুলনাগামী নকশীকাঁথা ট্রেন এসে পড়ে। মা-মেয়ে ও পুত্র গাড়ির হুইসেল শুনে তড়িঘড়ি করে রেল লাইন পার হওয়ার সময় ট্রেনের নিচে পড়ে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় কমেলা খাতুন (৩২) ও তার মেয়ে জেসমিন (১১)। এসময় তার পুত্র সন্তান নাঈম (৬) গুরুতর জখম হয়। জিআরপি থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। ইসলামে জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই ----------মুফতি আমিনি নরসিংদী সংবাদদাতা : ইসলামী ঐক্যজোট চেয়ারম্যান মুফতি মাওলানা ফজলুল হক আমিনী বলেছেন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে এ দেশকে ভারতের তুলে দেয়ার জন্য। ভারতের দূতাবাস পাহাড়া দেয়ার জন্য তাদের সৈন্য এনেছে যা অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। তিনি গত ১১ জুন নরসিংদী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জেলা ইসলামী ঐক্যজোট আয়োজিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। মাওলানা মোহাম্মদ আলী সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন দলের কেন্দ্রীয় মহাসচিব মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মাস্টার, জেলা জামায়াতের আমীর মাওলানা আ ফ ম আব্দুস ছাত্তার। বক্তব্য রাখেন মাওলানা মোহাম্মাদ আলী, মাওলানা হারিছুল হক, মাওলানা মজিবুর রহমান, গাজী ফজলুল রহমান, ডাক্তার রমজান আলী, মাওলানা সাখাওয়াত হোসেন, শেখ লোকমান হোসেন, মাওলানা আবুল কাসেম, জহিরুল হক ভূঞা প্রমুখ। মুফতি আমিনী বলেন সরকার জঙ্গিবাদের ধোঁয়া তুলে কওমী মাদরাসাগুলোতে সন্ত্রাসী খোঁজে অথচ তার দলেই রয়েছে চাপাতি লীগ সন্ত্রাসী জঙ্গি। আমরা জঙ্গি বাদের বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেছি। ইসলামে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসীবাদের কোন স্থান নেই। সরকার ইসলামী রাজনীতি ও কয়েকটি মিডিয়া বন্ধ করতে চায়। এটা সরকারের পাগলামী ছাড়া আর কিছু না। আওয়ামী লীগের সবই পাগল নয় কিছু ভাল লোক আছে। তবে সরকারের পুরোটাই পাগল। আওয়ামী ক্ষমতায় এসে আমাকে জেলে নিয়ে ছিল আবার কখন কি করে বলা যায় না। তিনি আওয়ামী সরকারের বিরুদ্ধে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে আগামী ১৫ অক্টোবর ঢাকার মহাসমাবেশ সফল করতে সকলের প্র্তি উদাও আহবান জানান। সম্মেলন শেষে মাওলানা মোহাম্মদ আলীকে সভাপতি ও মাওলানা হারিছুল হককে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা কমিটি গঠন করা হয়। আড়িয়াল খাঁ নদী থেকে রিকশাওয়ালার লাশ উদ্ধার মনোহরদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা : সম্প্রতি মনোহরদী উপজেলার চরগোয়ালবাড়ি গ্রামে আড়িয়ল খাঁ নদী থেকে রিকশাচালক কবির মিয়ার (২৪) লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের বাড়ি পার্শ্ববর্তী কটিয়াদী উপজেলার চরপুক্ষিয়া গ্রামে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৪ জুন সন্ধ্যার পর কবির নিজ বাড়ি থেকে বের হলে সারারাত্রে বাড়িতে না ফেরায় বিভিন্নভাবে খোঁজাখুজি করে ঘটনাস্থলে মৃত অবস্থায় তার লাশের সন্ধান পাওয়া যায়। মনোহরদী থানার ওসি মিয়া কুতুবুর রহমান চৌধুরীর নির্দেশে রামপুর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মুন্নাফ আলী সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী মর্গে প্রেরণ করেন। দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে মারাত্মকভাবে তাকে খুন করে বলে জানা যায়। নিহতের মা ফজিলত বেগম বাদি হয়ে মনোহরদী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। কোটালীপাড়ায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) সংবাদদাতা: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় অগ্নিকান্ডে ১১টি দোকান ভস্মীভূত হয়ে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। স্থানীয় জনগণ সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার দিবাগত রাত ১১টায় উপজেলা মেরী সিনেমা হলের সামনে নজরুলের দোকান থেকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে পাশের দোকানগুলোতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় জনগণ ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। অগ্নিকান্ডে কাজী সোলায়মানের দর্জি দোকান, শামীম বিশ্বাসের মুদি দোকান, নজরুল হাওলাদারের চার দোকান, মাসুম মিয়ার মুদি দোকান, জুয়েল হাওলাদারের মুদি দোকান, মিজানুর রহমানের মুদি দোকান, সোলায়মানের গাজী মুদি দোকান, নুর আলম গাজীর মুদি দোকান, বশার মোল্লার ইলেকট্রনিক্স দোকান, ইব্রাহীম মিয়ার মুদি দোকান, কাওছার মোল্লার মুদি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে। এতে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দোকান মালিকদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে। খবর পেয়ে ভোর ৬টায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমিনুজ্জামান খান মিলন, পৌর মেয়র এইচএম অহিদুল ইসলাম ও সাবেক মেয়র কামাল হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরকিয়ার টানে স্ত্রীকে তালাক দিলেন স্কুল শিক্ষক শ্রীবরদী (শেরপুর )সংবাদদাতা : শেরপুরের ঐতিহ্যবাহী শ্রীবরদী এপি পাইলট ইন্সটিটিউশনের ফকরুজ্জামান নামে জীববিজ্ঞানের এক শিক্ষক পার্শ্ববর্তী বাড়ির এক মহিলার পরকিয়ার টানে ২ সন্তানকে রেখে নিজ স্ত্রী আমেনা বেগম সিমাকে তালাক দিয়েছে। এ নিয়ে স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ওই শিক্ষকের নৈতিকতা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এদিকে স্ত্রী আমেনা বেগম সিমা স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছে বিচার ও আদালতে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। সন্ত্রাসীদের হাতে বৃদ্ধ খুন সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা : সম্প্রতি জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সন্ত্রাসীরা এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। নিহত আঃ রহমান (৭০) সলংগা থানার বয়লার চর গ্রামের মৃত মাহমুদ আলীর ছেলে। সিরাজগঞ্জ থানা পুলিশ খবর পেয়ে গভীর রাতে আলোকদিয়ার বাগডুমুর গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ব্যাপারে সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। টাকার অভাবে অপারেশন হয়নি মেধাবী ছাত্র সাকিবের ঝিনাইদহ সংবাদদাতা : ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজের বাংলা দ্বিতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র সাকিব মোহাম্মদ আল হাসান মিজু অর্থের অভাবে চিকিৎসা হতে পারছেন না। টাকা না থাকায় ঢাকা থেকে ফেরৎ পাঠিয়েছেন ডাক্তার। অথচ মাত্র দুই লাখ টাকা হলে টগবগে এই তরুণ ছাত্রের জীবন আবারো কর্মচঞ্চল হতে পারে। মিজু মেরুদন্ডের জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে ঝিনাইদহে বন্ধুদের বাসায় ধুঁকছেন। মিজুর গ্রামের বাড়ি সদর উপজেলার বংকিরা গ্রামে। পিতা মোজাম্মেল হক দরিদ্র চাষি। সংসারে আয়-রোজগারের মতো কেউ নেই। তার আরেক ভাই ইবনুর রহমান মিলন অল্প বয়সে ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন। সেও চিকিৎসা নিতে পারছে না। অভাব-অনটনের সংসারে মিজু নিজের প্রচেষ্টায় লেখাপড়া করছেন। ছোটবেলা থেকে মিজু পরিশ্রমী। গ্রামের ছাত্রদের নিয়ে রয়েছে মিজুর সমাজসেবামূলক কাজের দৃষ্টান্ত। বংকিরাসহ আশপাশের ৫টি গ্রামের হতদরিদ্র ছাত্রদের জন্য মিজুর জিনিয়াস একাডেমী কোচিং সেন্টারে দরিদ্র ও মেধাবীদের ফ্রি পড়ালেখা করানো হয়। জ্ঞানদানের জন্য নিজ গ্রামে গড়ে তুলেছেন প্রতিভা পাঠাগার নামে একটি লাইব্রেরী। কিন্তু সদা কর্মচঞ্চল ও সাহিত্যপ্রেমী মিজু নিজেই আজ পঙ্গু। অদম্য ইচ্ছা শক্তি থাকার পরও মিজু তার প্রতিষ্ঠিত স্কুলে যেতে পারেন না। বন্ধ হয়ে গেছে নিজের পড়ালেখা। কেসি কলেজের কর্মচঞ্চল ক্যাম্পাসে মিজুর অনুপস্থিতি তার সহকর্মীদের ব্যথিত করে। মিজু জানান, কুষ্টিয়া হাসপাতালের সার্জারী কনসালটেন্ট ডাঃ আব্দুল লতিফের কাছে গিয়ে রোগটি ধরা পড়ে। ডাক্তার লতিফের পরামর্শে মিজু উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় যান। মহাখালীর মেট্রোপলিটন হাসপাতালের নিউরো সার্জারী ডাঃ রাশেদুল আহম্মেদের কাছে দেখানোর পর ডাক্তার অপারেশনের কথা বলেন। পুরোপুরি সুস্থ হতে মিজুর প্রয়োজন দুই লাখ টাকা। কিন্তু অর্থের অভাবে নিজের পড়ালেখায় চালাতে পারেন না মিজু। তার মাতা-পিতা সন্তানের এই দুরবস্থায় দেশের বিত্তবানদের কাছে সহায়তা কামনা করেছেন। সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড, ঝিনাইদহ শাখা, সঞ্চয়ী হিসাব নং- ১০৪৩০, মোবাইল নং- ০১৭১৪-৭৭৯১৭২

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ