ঢাকা, রোববার 6 May 2018, ২৩ বৈশাখ ১৪২৫, ১৯ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ফিলিস্তিনের বিক্ষোভে ইসরাইল বাহিনীর গুলীতে চার শতাধিক আহত

 

৫ মে, হারেৎজে/লস এঞ্জেলেস টাইমস/মিডলইস্ট আই : ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বিক্ষোভে আবারো গুলি চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। শুক্রবার গুলিতে কয়েক ডজন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলের দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে শুক্রবার টায়ার পুড়িয়ে ও ঘুড়ি উড়িয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। আগের শুক্রবার গুলোর চেয়ে বিক্ষোভকারীদের সংখ্যা কম ছিল। 

এদিকে, সাংবাদিক হ্যারি ফওসেট বলেন, আজ বেশ কয়েকবার ইসরায়েলের সেনাবাহিনীকে তাজা গুলি ব্যবহার করতে দেখেছি। ব্যাপকভাবে কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করা হয়েছে।

ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, ১৪ মে তারা ব্যাপক বিক্ষোভের আয়োজন করবেন। কেননা, ওইদিন তেল আবিব থেকে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়ার কথা রয়েছে। গাজা উপত্যকায় গত ৩০ মার্চ শুরু হওয়া বিক্ষোভে এ পর্যন্ত অর্ধশত নিহত হয়েছেন। তবে, এখনো পর্যন্ত কোনো ইসরায়েলি হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

ধারাবাহিকতা বজায় রেখে টানা ষষ্ঠ শুক্রবারেও অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইল সংলগ্ন সীমান্তে বিক্ষোভ করেছে প্রায় ১০ হাজার ফিলিস্তিনি। বিক্ষোভ থামাতে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর ছোড়া গুলিতে আহত হয়েছেন ৪৩১জন। সব মিলিয়ে এ সপ্তাহে বিক্ষোভে চার শতাধিক ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। আগের পাঁচবারের মতো এবারের বিক্ষোভও সহিংসতার মোড় নেয়। বিক্ষোভকারীরা সীমান্ত-বেষ্টনী ভাঙ্গার চেষ্টা করেছেন।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরাইলি বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে শুক্রবার কমপক্ষে ৪৩১জন বিক্ষোভকারী আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ৭০জন আহত হয়েছেন গুলিতে। ইসরাইলি প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা সীমান্তের পাঁচটি স্থানে অগ্নিসংযোগ করেছে। এছাড়া, ইসরাইলে প্রবেশের চেষ্টাও করেছে অনেকে। এর মধ্যে তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। বিক্ষোভে আহত ফিলিস্তিনিদের মধ্যে ২২৯জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

৩০ মার্চ (শুক্রবার) ভূমি দিবস উপলক্ষে শুরু হওয়া এই বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ৪৫ ফিলিস্তিনি। এর মধ্যে সর্বশেষ প্রাণহানি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবারে। নিহতদের মধ্যে একজন সাংবাদিকও রয়েছেন।

ইসরাইলের সামরিক বাহিনীর বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, গাজা-ইসরাইল সীমান্তের অন্তত পাঁচটি জায়গায় বিক্ষোভকারীরা বেষ্টনী ভাঙ্গার চেষ্টা চালিয়েছে। এছাড়া, তারা ইসরাইলি বাহিনীর দিকে জ্বলন্ত গাড়ির চাকা, দাহ্য পদার্থ মিশ্রিত ঘুড়ি ও পাথর ছুড়ে মেরেছে।

নিরাপত্তা পরিষদে সীমিত সম্ভাবনার কারণেই ইসরাইলের প্রার্থীতা প্রত্যাহার :২০১৯ ও ২০২০ সালের জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হওয়ার প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছে ইসরায়েল। দেশটি পশ্চিম ইউরোপ ও অন্যান্য এলাকার দুটি আসনের বিপরীতে জার্মানি ও বেলজিয়ামের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিল। শুক্রবার দেশটি তাদের প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খবর জানিয়েছে।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে পাঁচটি স্থায়ী সদস্য রয়েছে। তারা হলো যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, ফ্রান্স ও চীন। এছাড়া দুই বছর মেয়াদে কিছু অস্থায়ী সদস্য নির্বাচন করা হয়। অস্থায়ী সদস্য হওয়ার জন্য জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে দুই-তৃতীয়াংশ দেশের ভোটের দরকার পড়ে। ভৌগলিক সমতা বিধানের জন্য আফ্রিকা ও এশিয়া অঞ্চলে ৫টি আসন, পূর্ব ইউরোপের জন্য একটি আসন, লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান দেশগুলোর জন্য দুইটি এবং পশ্চিম ইউরোপ ও অন্যান্য দেশের জন্য একটি আসন বরাদ্দ দেওয়া হয়ে থাকে। আগামী মাসে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে এ নিয়ে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হবে।

এবার পশ্চিম ইউরোপ ও অন্যান্য অঞ্চল থেকে দুইটি আসনের বিপরীতের প্রার্থীতা ঘোষণা করে জার্মানি, বেলজিয়াম ও ইসরায়েল। শুক্রবার ইসরায়েল প্রার্থীতা প্রত্যাহার করায় জার্মানি ও বেলজিয়াম অপ্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে গেছে। তারপরও নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হওয়ার জন্য সাধারণ অধিবেশনে তাদের দুই-তৃতীয়াংশ ভোট পেতে হবে।

জাতিসংঘে ইসরায়েলী দূতাবাস থেকে শুক্রবার এক বিবৃতি বলা হয়, জাতিসংঘে পূর্ণ অংশগ্রহণ ও সিদ্ধান্তগ্রহণ প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভূক্তির ক্ষেত্রে ইসরায়েলের অধিকার রয়েছে। আর বিষয়টি প্রতিষ্ঠার জন্য আমাদের মিত্রদের সঙ্গে মিলে কাজ চালিয়ে নেওয়া সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আমাদের ভাল মিত্র ও অংশীদারদের সঙ্গে পরামর্শ করার পর ইসরায়েল নিরাপত্তা পরিষদের আসনের জন্য প্রার্থীরা স্থগিত করছে। তবে নাম প্রকাশ না করে জাতিসংঘের একটি সূত্র দাবি করেছে, ভোটে জেতার সীমিত সম্ভাবনার কারণেই তারা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছে।

সাধারণত আঞ্চলিক দলগুলো সমঝোতার মাধ্যম প্রার্থীতার বিষয়ে রাজি হয়। এক্ষেত্রে আসনের জন্য প্রতিযোগিতা খুব কম দেখা যায়। প্রতিবছর সাধারণ পরিষদ পাঁচটি নতুন সদস্যও নির্বাচন করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ