বুধবার ১৬ জুন ২০১০
Online Edition

বিজ্ঞানীরা প্রথমবারের মতো তৈরি করলেন উড়াল যান্ত্রিক প্রজাপতি -ফিরোজ খান

মানুষ বর্তমানে প্রযুক্তির দিক দিয়ে অনেক বেশি এগিয়ে গেছে। বিজ্ঞানী তথা প্রযুক্তিবিদরা এখন এমন কৃত্রিম বা যান্ত্রিক জিনিস তৈরি বা আবিষ্কার করছেন যা অনেক সময় প্রাকৃতিক বলেই মনে হয় মানুষের কাছে। বিজ্ঞানীরা এবার প্রথমবারের মতো আবিষ্কার করলেন যান্ত্রিক প্রজাপতি, যা জীবন্ত প্রজাপতির মতোই উড়তে পারে। জানা গেছে, এটি তৈরি করেছেন হার্ভার্ড ও টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা। যান্ত্রিক বা কৃত্রিম এ প্রজাপতি তৈরি করা হয়েছে ‘সোয়ালোটেইল' প্রজাপতির অনুকরণে। এর শক্তির উৎস একটি মাত্র ইলাস্টিক ব্যান্ড। এ ইলাস্টিক ব্যান্ড থেকে শক্তি নিয়ে জীবন্ত প্রজাপতির মতো ডানা ঝাপটে উড়ে বেড়ায়। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোরোবোটিক্স বিজ্ঞানী হিরোটো তানাকা বলেন, আমাদের জানা মতে পৃথিবীতে এটিই প্রথম মুক্তভাবে উড়তে সক্ষম যান্ত্রিক প্রজাপতি। উড়তে থাকলে অনেকেই এটিকে আসল বা জীবন্ত প্রজাপতি মনে করেন। অর্থাৎ এটি এমনই নিখুঁত ও আধুনিকভাবে তৈরি করা হয়েছে। এটি তৈরি করতে এক সঙ্গে কাজ করেছেন হিরোটো তানাকা ও টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসাও শিমুয়ানা। তানাকা আরও বলেন, আমরা এ যান্ত্রিক প্রজাপতিটিকে একটি আসল প্রজাপতির মতো ওড়ার ক্ষমতা দিতে সক্ষম হয়েছি। এটির ডানা ঝাপটানোর গতি, ওড়ার ধরন, ডানার আকৃতি ইত্যাদি একটি আসল সোয়ালোটেইল প্রজাপতির মতো। গবেষকরা জানিয়েছেন, এ যান্ত্রিক প্রজাপতিটি তৈরির মূল লক্ষ্য হলো একটি আসল বা জীবন্ত প্রজাপতির উড়বার পদ্ধতিটি আরও বেশি বা ভালোভাবে বুঝতে পারা। এ প্রজাপতিটি তৈরির সময় তারা বুঝতে পারেন যে, যান্ত্রিক প্রজাপতিটির ডানায় আসল প্রজাপতির ন্যায় যান্ত্রিক ধমনী স্থাপন করায় এটির ওড়ার ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এটিকে কিভাবে আরও আধুনিক করা যায় সেই বিষয় নিয়েও তারা ভাবছেন। শিশুদের কাছে এটি বেশ মজার খবর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ