বুধবার ১৬ জুন ২০১০
Online Edition

৬০ হাজার বছর আগের উটপাখির ডিমের খোসার সন্ধান লাভ -ইয়াছিন হোসেন খান

প্রাচীনকালে মানুষ পরস্পরের মধ্যে তথ্য আদান-প্রদান বা ভাব বিনিময়ের জন্য ব্যবহার করতো নানা ধরনের সাংকেতিক চিহ্ন বা প্রতীক। এসব সাংকেতিক চিহ্ন বা প্রতীকের জন্য ব্যবহার হতো গাছের ছাল বা বাকল, গাছের পাতা, কাঠ, পাথর, লোহা ইত্যাদি। অনেক সময় ব্যবহার হতো বিভিন্ন প্রাণীর ডিমের খোসা। বিজ্ঞানীরা এসব বিষয় নিয়ে প্রায়ই গবেষণা চালান। খুঁজে পান মানব সভ্যতার আদি ইতিহাস। সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা এমনই একটি জিনিসের সন্ধান পেয়েছেন, যা প্রায় ৬০ হাজার বছর আগের। এটি হচ্ছে উট পাখির ডিমের খোসার ভাঙা কিছু অংশ। বিজ্ঞানীরা এগুলো নিয়ে ব্যাপক গবেষণা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন আদি ইতিহাস জানা বা বের করার জন্য। বিজ্ঞানীরা এগুলো খুঁজে পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার পাথরঘেরা এলাকা ডিয়েপক্লুফ থেকে। জানা গেছে, উটপাখির ডিমের খোসার অংশগুলোর মধ্যে রয়েছে একাধিক লাইন বা সারিতে গোলাকৃতি রেখাচিহ্ন। এগুলো নিয়ে ব্যাপক পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন ন্যাশনাল একাডেমি অব সায়েন্সের বিজ্ঞানীরা। ফ্রান্সের তালেসেঁর বর্দো ইউনিভার্সিটির ড. পিয়েরেজঁ তেসিরে জানিয়েছেন, ডিমের খোসাগুলোতে অাঁকা রয়েছে পাশাপাশি একাধিক রেখাচিহ্ন, যেগুলো ঘোরানো চক্রাকারে। রেখাগুলো পরস্পরকে ক্রস করছে ডান দিকে। ড. তেসিরে আরও বলেছেন, পুরো ডিমের খোসাটি পাওয়া গেলে আরও ভালো হতো। যার মাধ্যমে মানব সভ্যতা বা আদি ইতিহাস বের করতে আরও সমজ নির্ভরযোগ্য হতো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ