ঢাকা, সোমবার 7 May 2018, ২৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২০ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কেউ অকৃতকার্য হলে বকাঝকা দিয়ে লাভ নেই

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল হস্তান্তর করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফলের অনুলিপি হস্তান্তর করেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। পরে ১০টি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানগণ পৃথকভাবে স্ব-স্ব শিক্ষা বোর্ডের ফলাফলের কপি প্রধানমন্ত্রীর নিকট হস্তান্তর করেন।
এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এবার ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে। এটি একটি সফলতা। আমি তাদের অভিনন্দন জানাই। আবার যারা পাস করতে পারেনি, তাদেরও অভিনন্দন জানাই। যারা অকৃতকার্য হয়েছে, তারাও তো চেষ্টা করেছে। অভিভাবকের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেউ অকৃতকার্য হলে বকাঝকা দিয়ে লাভ নেই। তাদের অনুপ্রাণিত করতে হবে, তারা যেন ভবিষ্যতে ভালো করতে পারে। অভিভাবকদের এ আহ্বান জানাই।
সকালে গণভবনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের হাত থেকে প্রধানমন্ত্রী  এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি গ্রহণ করার পরে এসব কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর বরিশাল ও বান্দরবান জেলা প্রশাসন ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। ভিডিও কনফারেন্সে এ দুই জেলার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গেও মতবিনিময় করেছেন তিনি।
বান্দরবান জেলার প্রতিনিধিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, পাহাড়ে শান্তিপূর্ণ অবস্থান বজায় রাখতে হবে। তাহলেই উন্নয়নের সুফল ভোগ করা সম্ভব হবে। সরকার সারা দেশের মতো পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নের ব্যাপারে সজাগ রয়েছে। সুযোগ পেলে পার্বত্য অঞ্চলে ঘুরতে যাওয়ার কথাও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।
এদিকে বরিশালকে আবারও বাংলার শস্য ভা-ার হিসেবে গড়ে তুলতে সরকার বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা ভাবছে বলেও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বরিশাল একসময় বাংলার শস্য ভান্ডার ছিল, আবারও বরিশালকে বাংলার শস্য ভা-ার হিসেবে গড়ে তোলা হবে।
ভিডিও কনফারেন্স শেষে, অভিভাবক ও শিক্ষকদের উদ্দেশে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময়, পরীক্ষায় ফেল করার জন্য শিক্ষার্থীদের বকাঝকা করতে অভিভাবকদের নিষেধ করেছেন তিনি। শিক্ষকদের উদ্দেশেও একই কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং মাদরাসা এবং কারিগরি শিক্ষা বিভাগ সংক্রান্ত প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বরিশাল এবং বান্দরবান জেলা সংযুক্ত ছিল। প্রধানমন্ত্রী পরে জেলা দুটির শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ