ঢাকা, সোমবার 7 May 2018, ২৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২০ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কেশবপুরের ভাটার ম্যানেজার ও নৈশ প্রহরীকে বেঁধে গণডাকাতি

কেশবপুর (যশোর) সংবাদদাতা : কেশবপুর ত্রিমোহিনী সড়কের দোরমুটিয়া এলাকার কেশবপুর ব্রিকসের ম্যানেজার ও নৈশ প্রহরীকে বেঁধে রেখে একাধিক গাড়ি থামিয়ে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এ সময় ডাকাতরা নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে থানার ওসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। শনিবার গভীর রাতে এ গণডাকাতি সংঘটিত হয়।
কেশবপুর ব্রিকসের সহকারী ম্যানেজার আমজাদ হোসেন জানান, গভীর রাতে ১৫/২০ জনের একদল অস্ত্র সজ্জিত মুখোশধারী ডাকাত ভাটার অফিস রুমের তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে অফিসের দু’জন সহকারী ম্যানেজার ও দু’জন নৈশ প্রহরী ও তিনজন পথচারীকে বেঁধে রেখে সাতটি মোবাইল ও নগদ পাঁচ হাজার টাকা লুট করে নেয়। এরপর ডাকাতরা ইটভাটার সামনে কেশবপুর-ত্রিমোহীনি সড়কে একাধিক গাড়ির গতিরোধ করে যাত্রীদের সর্বস্ব লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে আমাকেসহ সহকারী ম্যানেজার আইয়ুব হোসেন, নৈশ প্রহরী সিদ্দিকুর রহমান, ইউনুস আলী ও তিনজন পথচারীকে একত্রে বেঁধে রাখে। খবর পেয়ে, কেশবপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আলাউদ্দিন আলা ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আব্দুল¬াহ জানান, ডাকাতির খবর শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে ডাকাতি মামলা হয়েছে।
ডাল পড়ে মহিলার মৃত্যু : কেশবপুর উপজেলার বরনডালি গ্রামে গাছের ডাল মাথায় পড়ে পঞ্চাশোর্ধ এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। এলাকাবাসী ও থানা সুত্র জানায়, বরনডালি গ্রামের আনছার মোল¬্যার স্ত্রী মাছুরা বেগম ওরফে জরিনা (৫৫) শনিবার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে মাঠের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় বাড়ির পাশের জনৈক ডাঃ বাবু খানের জমির কয়েকটি মেহগুনী গাছ ব্যাপারি আব্দুর রশিদের লোকজন কাটছিলেন। ওই গাছের নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় মেহগুনী গাছের ডাল জরিনা বেগমের মাথায় পড়লে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার এস আই ফকির ফেরদৌস জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সত্যতা পায়। তবে দুই পক্ষ বিষয়টি মিমাংসা করে নেয়ায় ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ