ঢাকা, বৃহস্পতিবার 10 May 2018, ২৭ বৈশাখ ১৪২৫, ২৩ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দুদকে হাজির হননি হা-মীমের এ কে আজাদ ॥ পেলেন আরও সময়

স্টাফ রিপোর্টার : এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি এ কে আজাদকে হাজির হওয়ার জন্য আরও সময় দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। কমিশন সচিব মো. শামসুল আরেফিন জানান, এ কে আজাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২২ মে নতুন তারিখ রাখা হয়েছে।
 কোটি কোটি টাকার কর ফাঁকি দিয়ে ঘোষিত আয়ের বাইরে হাজার কোটি টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পাওয়ার পর হা-মীম গ্রুপের মালিক আজাদের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করে দুদক। এর অংশ হিসেবে গত ৩ এপ্রিল তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়। কিন্তু তখন তিনি দেশের বাইরে থাকায় পরে এসে সময় চেয়ে আবেদন করেন। এরপর গত ২৪ এপ্রিল আজাদকে দ্বিতীয় দফা নোটিস দিয়ে ৯ মে তাকে দুদকে হাজির হতে বলা হয়। কিন্তু গতকাল বুধবার তিনি সেগুন বাগিচায় কমিশন কার্যালয়ে হাজির না হয়ে দুই মাসের সময়ের আবেদন করেন বলে জানান শামসুল আরেফিন। তিনি বলেন, “ব্যক্তিগত কিছু কারণ দেখিয়ে তিনি আমাদের কাছে দুই মাসের সময় চেয়ে আবেদন করেছেন। ওই আবেদন বিবেচনায় নিয়ে ২২ মে সময় দেওয়া হয়েছে।”তিনি বলেন, "যে কাউকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ আমরা দিয়ে থাকি, তাকেও আমরা এই সুযোগ দিয়েছি। তবে তাকে অতিরিক্ত সুযোগ দেওয়া অবান্তর।” তবে কেউ এভাবে দুদকের দেওয়া সুযোগের অপব্যবহার করেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করেন শামসুল আরেফিন।
দুদকের একজন কর্মকর্তা বলেন, এক ব্যক্তি গত অক্টোবরে এ কে আজাদের বিরুদ্ধে কমিশনে অভিযোগ করেন। সেখানে বলা হয়, আজাদ তার বিভিন্ন কোম্পানির কর ফাঁকি দিয়ে অবৈধ সম্পদ গড়েছেন এবং বিপুল পরিমাণ অর্থ বিদেশে পাচার করেছেন। মূলত তৈরি পোশাকের ব্যবসা দিয়ে প্রতিষ্ঠা পাওয়া ৫৯ বছর বয়সী আজাদ হা-মীম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। এই গ্রুপের ব্যবসা ছড়িয়ে আছে বস্ত্র, প্যাকেজিং,পাট, চা, রসায়ন, পরিবহনসহ বিভিন্ন খাতে। তিনি শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকেরও একজন পরিচালক।
বেসরকারি টেলিভিশন স্টেশন চ্যানেল ২৪ এবং দৈনিক সমকাল আজাদের মালিকানাধীন টাইমস মিডিয়া লিমিটেডের দুটি প্রতিষ্ঠান। তিনি সমকালের প্রকাশক এবং চ্যানেল ২৪ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক।
জরুরি অবস্থার মধ্যে ২০০৮ সালে দেশের অনেক ব্যবসায়ীর মতো আজাদের বিরুদ্ধেও দুর্নীতির মামলা হয়েছিল। রমনা থানার ওই মামলায় ঘোষিত আয়ের বাইরে তার ২০ কোটি ৩৬ লাখ টাকার সম্পদ থাকার কথা বলা হয়েছিল। তবে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর অন্য অনেক মামলার মত আজাদের ওই মামলাতেও চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয় দুদক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ