ঢাকা, শুক্রবার 21 September 2018, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পরমাণু সমঝোতা ত্যাগ করে ট্রাম্প ভুল করেছেন

সংগ্রাম অনলাইন : ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন বলেছেন, পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা ত্যাগ করে ‘ভুল’ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার জার্মানির ডয়েচে ভেলে’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছিলেন, ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা ত্যাগ করে ‘জঘন্য ভুল’ করেছেন। একইসঙ্গে তিনি ঘোষণা করেন, ইউরোপের সঙ্গে একই সমঝোতা চালিয়ে যেতে হলে তেহরানকে ইউরোপীয় দেশগুলোর পক্ষ থেকে ‘বাস্তব ও কার্যকর গ্যারান্টি’ নিতে হবে।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ওই সাক্ষাৎকারে বলেন, আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ধরে রাখার স্বার্থে ইউরোপকে পরমাণু সমঝোতায় দেয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষার গ্যারান্টি পুনর্ব্যক্ত করতে হবে। ম্যাকরন বলেন, “মধ্যপ্রাচ্যে স্থিতিশীলতা ও শান্তি রক্ষা করা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ইরানের সঙ্গে ছয় জাতিগোষ্ঠীর স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ার একদিন পর ম্যাকরন এসব কথা বললেন। ট্রাম্প তার ঘোষণায় বলেন, তার প্রশাসন পরমাণু সমঝোতার মাধ্যমে স্থগিত হয়ে যাওয়া নিষেধাজ্ঞা পুনরায় আরোপের পাশাপাশি নতুন করে ইরানের বিরুদ্ধে ‘কঠোরতম অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা’ আরোপ করবে।

২০১৫ সালে ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে পরমাণু সমঝোতা সই হয়। সমঝোতা অনুসারে ইরান তার পরমাণূ কর্মসূচিতে নিয়ন্ত্রণ সীমাবদ্ধতা আরোপ করে। এর বিপরীতে আমেরিকা ও পশ্চিমা দেশগুলোর পক্ষ থেকে তেহরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার কথা ছিল।

কিন্তু পরমাণু সমঝোতার বয়স প্রায় তিন বছর হতে চললেও ইরানের ওপর থেকে সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়নি। শুধু তাই নয়, এটা একটা আন্তর্জাতিক সমঝোতা হলেও তার প্রতি সম্মান দেখায়নি আমেরিকা। পাশাপাশি ইরানের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন সরকার। সূত্র: পার্সটুডে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ