ঢাকা, শুক্রবার 11 May 2018, ২৮ বৈশাখ ১৪২৫, ২৪ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ছড়া

গ্রীষ্মকাল 

সৈয়দ মাশহুদুল হক

 

বোশেখ-জ্যৈষ্ঠ দু'ভাই গলাগলি করে

মিলেমিশে একসাথে গ্রীষ্মটা গড়ে।

বৈশাখে ঝড় আসে সাথে ঝরে বিষ্টি

জ্যৈষ্ঠতে ফল পাকে স্বাদ টক-মিষ্টি।

 

বৈশাখে দেশ জুড়ে হয় বোশেখ মেলা

দলবেঁধে যায় সবে ঘোরে সারাবেলা।

বৈশাখে কৃষাণেরা বোরোধান কাটে

কাঠফাটা রোদে পুড়ে সারাদিন খাটে।

 

আকাশেতে মেঘ ডাকে ধরে রণসাজ

বিদ্যুৎ চমকায় আঁচড়ে পড়ে বাজ।

ঝড়ে ভাঙে গাছপালা-ভাঙে বাড়িঘর

রোদে পুড়ে মাটি হয় পুরো খরখর। 

 

জ্যৈষ্ঠতে ফল পাকে গাছে খায় দোল

মধুমাস নাম তার নাই কোনো তুল।

আম, জাম, লিচু পাকে সাথে জামরুল

হাটে হাটে ফড়িয়াদের বাড়ে কলরোল। 

 

রৌদ্রের প্রখরতায় বেড়ে গেলে তাপ

ভয় নাই পাওয়া যায় তরমুজ-ডাব।

কুটুমেরা বাড়ি এলে হাতে থাকে ফল

ফল খেয়ে যায় কেটে গ্রীষ্মের পল।

 

বাড়ছে বয়স 

জিল্লুর রহমান পাটোয়ারী

 

বয়স কি আর থেমে থাকে,

চলছে নদীর স্রোতের মতো -

এক দুই করে বাড়ছে বয়স,

বয়স কমছে না তো।

 

শিশু থেকে ছেলের বয়স,

জোয়ান থেকে বুড়ো -

ভাঙ্গা ঘরের খুঁটির মতো,

সবাই বলে দূর-হ।

 

বুড়ো বয়স যত জঞ্জাল,

পিছু লেগে থাকে -

হরহামেশা ঠাট্টা বিদ্রƒপ,

ছবি শুধু আঁকে।

 

বড় হবো 

ইদ্রিস মন্ডল

 

মাগো আমার মনের ভিতর

একটা ছবি আঁকি 

করবো তোমার স্বপ্ন পূরণ

ইচ্ছা মনে রাখি

অনেক বড়ো হবো আমি

চিনবে দেশের লোক

পড়শিরা সব দেখবে যখন

ঠিকরে যাবে চোখ

আমার সুনাম করবে সবাই

তেমন মানুষ হবো

লেখা পড়া করবো এমন

সবার আগে রবো

অনেক বড়ো হবো আমি

জিদ রাখি নিজ বুকে

হাসি আমি ঠিক ফুটাবো

মাগো তোমার মুখে।

 

 

মায়ের ভালোবাসা

জাকির আজাদ 

 

মায়ের জন্য বিশ্ব দেখি

মায়ের জন্য আমি,

মায়ের চেয়ে এতো বেশি

কি আছে আর দামী।

 

যতো দিক ছুটি না কেনো

মায়ের সামনে থামি,

যতো উর্ধ্বে উঠি, তবু

মায়ের জন্য নামি।

 

মায়ের জন্য এই জীবন

পায়ের তলায় মাটি,

মায়ের নিকট বিশাল-বিরাট

তাবত খুঁটিনাটি।

 

মায়ের আদর ¯েœহ পেয়ে

তাইতো পরিপাটি,

মায়ের ভালোবাসার চেয়ে

কিছু নাইরে খাঁটি।

 

চাঁদ উঠেছে

নাহিদ নজরুল

 

বৃষ্টিমুখর মেঘলা রাতে

চাঁদ উঠেছে আকাশে

ক্ষেত খামারের ভেতর থেকে

ব্যাঙের কতো হাঁক আসে।

দূর-দূরান্তের বৃক্ষলতাও

আসছে ভেসে দৃষ্টিতে

ঝক-ঝকা ঝক লাগছে দারুণ

সতেজ ওরা বৃষ্টিতে।

খুশির তালে তাল বেতালে

নাচছে ঝোপে জোনাকি

মিটমিটে মিট আলো দেখে

ধরতে চাইছে বোন-আখি।

 

 

নাটাই সুতো

মুহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহফুজ

 

নাটাই সুতোয় টান পড়েছে

ফিরতে হবে ঘরে

ওড়াউড়ি বন্ধ করো

দেখা হবে পরে।

 

ঘুড়ির মালিক টানবে যেদিন

সাংগ হবে খেলা

থামবে তখন সব কোলাহল

ভাংবে মিলন মেলা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ