ঢাকা, শনিবার 12 May 2018, ২৯ বৈশাখ ১৪২৫, ২৫ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ছাত্রলীগের সম্মেলনস্থলে দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলনস্থল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টায় উদ্যানের কালী মন্দিরের কাছে এ ঘটনা ঘটে। এসময় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মেলনের মঞ্চে ছিলেন।
জানা যায়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফকির রাসেলের অনুসারীদের সাথে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একটি গ্রুপের সাথে প্রথমে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি হয়। পরবর্তীতে বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সাথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরো কয়েকটি হলের ছাত্রলীগের নেতারা যোগ দিলে দু'পক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ বাধে। এ সময় ইটপাটকেল ছোঁড়াসহ বেশ কয়েকজনকে বাঁশ নিয়ে ছোটাছুটি করতেও দেখা যায়।
সরেজমিনে দেখা যায় যে, উদ্যানের মধ্যে কালি মন্দিরের পশ্চিম পার্শ্বে এই দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতাকর্মীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে সেখানে উপস্থিতি ঢাবির এক নেতার মাথায় জাবি ছাত্রলীগের এক কর্মী বাঁশ দিয়ে আঘাত করে। এরপর ওই নেতার সাথে থাকা ঢাবির নেতাকর্মীরা লাঠি, বাঁশ, ইটপাটকেল দিয়ে অপর গ্রুপের নেতাকর্মীদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। এতে দুই গ্রুপের মধ্যে প্রায় বিশ মিনিট ধরে সংঘর্ষ চলতে থাকে।
এদিকে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের সময় সাধারণ কর্মীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। পরে উভয় পক্ষের নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মেলনস্থলে আসার পর ছাত্রলীগের এ সংঘর্ষের ঘটনায় নাম প্রকাশ না করার শর্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সিনিয়র কয়েকজন নেতা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ