ঢাকা, শনিবার 12 May 2018, ২৯ বৈশাখ ১৪২৫, ২৫ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খালেদা জিয়া মাইনাস হলে আপনিও মাইনাস হয়ে যাবেন

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, যেদিন খালেদা জিয়া মাইনাস হবেন তার বেশিক্ষণ লাগবে না, মুহূর্তের মধ্যে আপনিও মাইনাস হয়ে যাবেন।
গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সম্মিলিত ছাত্র ফোরাম আয়োজিত বিএনপির সাবেক সহসাংগঠনিক সম্পাদক প্রয়াত নাসির উদ্দিন পিন্টুর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা ও স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
সংগঠনের আহ্বায়ক নাহিদুল ইসলাম নাহিদের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ।
খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকার জন্য শেখ হাসিনা নির্বাচন থেকে বেগম জিয়াকে মাইনাস করতে চাচ্ছেন। আমরা বলতে চাই, ১/১১ সময় আমরা শুনেছি মাইনাস টু'র কথা। আর আজকে আমরা শুনছি মাইনাস ওয়ানের কথা। কিন্তু মাইনাস টু'র কুশীলবরা এখনও বেঁচে আছেন। প্রধানমন্ত্রীকে আমি বলতে চাই আপনিও কিন্তু মাইনাস টু’র একজন ছিলেন। যেদিন বেগম জিয়া মাইনাস হবেন, তারপর আর বেশিক্ষণ লাগবে না, মুহূর্তের মধ্যে আপনিও মাইনাস হয়ে যাবেন। অতএব সাবধান খালেদা জিয়াকে মাইনাসের চিন্তাও করবেন না।
তিনি বলেন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন নিশ্চিত করতে খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। ২০১৪ সালের মতো নির্বাচন এদেশের জনগণ আর করতে দেবে না। খালেদা জিয়ার মুক্তি গণতন্ত্রের পুনরুদ্ধার, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন একই সুতায় গাঁথা। খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা ছাড়া গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সম্ভব নয়। আর গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার না করে আগামী নির্বাচন করতে দেবে না দেশের জনগণ। 
খন্দকার মোশাররফ বলেন, সরকার আদালতের ঘাড়ে বন্দুক রেখে বেগম জিয়ার কারাবাসকে আরও বৃদ্ধি করছে। সরকার নিয়ন্ত্রিত বিচারবিভাগের মাধ্যমে বেগম জিয়াকে মুক্ত করা যাবে না। গণজাগরণের মাধ্যমেই খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে।
পিন্টুকে কারাগারে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, পিন্টুর মৃত্যুর কারণ তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়নি। সুতরাং এর জন্য যারা দায়ী এ দেশের জনগণ তাদের একদিন বিচার করবে। বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলী ও চৌধুরী আলমসহ আমাদের অনেক নেতা নিখোঁজ হয়েছে এবং অনেককে ক্রসফায়ারে হত্যা করা হয়েছে। এসব বিচারবর্হিভূত সব হত্যাকান্ডেরও বিচার হবে।
তিনি আরও বলেন, খন্দকার মোশাররফ বলেন, নির্বাচনে বছরে জনগণকে প্রতারণা করার জন্য সরকার বিশাল বাজেট নিয়ে আসছে। আপনারা পত্রিকায় দেখেছেন এ বারের বাজেটে ৩৫-৪০ হাজার কোটি টাকা কাটছাঁট করতে হয়েছে। কারণ রাজস্ব আদায় হয়নি। যেখানে গতবছরের বাজেট টার্গেট বাস্তবায়ন হয়নি সেখানে তার চেয়ে বড় বাজেট করার কি অর্থ থাকতে পারে? একমাত্র উদ্দেশ্য নির্বাচনী বছরে দেশের জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করা। মানুষ এত বোকা নয়, তাদের সঙ্গে প্রতারণা করা যাবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ