ঢাকা, শনিবার 12 May 2018, ২৯ বৈশাখ ১৪২৫, ২৫ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কেসিসি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দানবীয় চেহারা ফুটে উঠেছে পর্যবেক্ষণের জন্য দেশি-বিদেশিদের আসার আহ্বান

খুলনা অফিস : কেসিসি নির্বাচনের পুলিশী নির্যাতন অপ্রচারের মাধ্যমে আরও একবার সরকারের দানবীয় চেহারা ফুটে উঠেছে। প্রতিদিনই নেতাকর্মীদের সাড়াশী অভিযানের মাধ্যমে গ্রেফতার করা হচ্ছে। বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশীর নামে আতংক সৃষ্টি করা হচ্ছে।  ডিবি পুলিশ, থানার পুলিশ ও আওয়ামী লীগ একই সুরে কথা বলছেন। নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে শেখ হাসিনার পরিবারের লোক নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে বসে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষদের ডেকে নির্বাচন প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮ টায় নগরীর মিয়াপাড়ায় নিজ বাস ভবনে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আমি একজন মেয়র প্রার্থী। আমার কাজ হচ্ছে ভোট প্রার্থনা করা। এই মুহুর্তে আমার ভোটার কাছে থাকার কথা ছিলো। তা না করে আমাকে আবারও প্রেসব্রিফিংয়ের আয়োজন করতে হয়েছে। কারণ, এই সিটি নির্বাচনে সরকারের দানবীয় চেহারা আবারও ফুটে উঠেছে। গতকাল থেকে পুলিশ আবারও বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সাড়াশী অভিযান পারচালনা করছে। গতকালও আমাকে রাত ২ টা ৪৭ মিনিট পর্যন্ত জেগে থাকতে হয়েছে। গভীর রাত পর্যন্ত আমাকে মহানগরীর থানায় থানায় ঘুরতে হয়েছে। একদিকে ডিবি নামক আতংক। অন্যদিকে থানা পুলিশের আহ্বান। 

তিনি বলেন, আমাদের মিছিল বড় হচ্ছে, জমায়েত বড় হচ্ছে। এটা সরকারের মাথা ব্যাথার কারণ। এত নির্যাতন সত্বেও কিভাবে বিএনপির কাছে মানুষ যাচ্ছে কিভাবে তারা রাস্তায় নামছে এই ভেবেই আওয়ামী লীগ আবারও নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়েছে। গতকাল ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে মিছিল শেষ করার সাথে সাথে ৩ জন নেতাকে গ্রেফতারে করে পুলিশ। যেখানেই নির্বাচনী গণসংযোগ করি সেখানেই পুলিশ হাজির হয়ে যায়। নাম নোট করে ছবি তোলে নেতাকর্মীদের। আমি নগরীর যে প্রান্তেই যাই গোয়েন্দারা অনুসরণ করে। তাহলে কি সরকার এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি। 

আমি গতকাল আওয়ামী লীগের দেয়া বক্তব্য যা পত্রিকায় এসেছে এবং পুলিশের বক্তেব্যর প্রতিবাদ জানাই। তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃত বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মাদক ও  ভূমি দস্যুতার অভিযোগ নাই। 

তিনি বলেন, গতকাল আরও ১৭ জন নেতাকর্মী গ্রেফতার হয়েছে এবং ৫ শতাধিক বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের সন্ত্রস্ত করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো-গত ২২ এপ্রিল গ্রেফতার হন খুলনা মহানগর বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদ পারভেজ বাবু, ৩০ এপ্রিল খুলনা মহানগরীতে ধানের শীষের পক্ষে প্রচারণা কাজে অংশ নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে নগরীর গল্লামারী থেকে ডিবির হাতে গ্রেফতার হন বাগেরহাট জেলা যুবদল সভাপতি মেহবুবুল হক কিশোর।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ