ঢাকা, শনিবার 19 May 2018, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কুরআন ও হাদীস অনুযায়ী ইসলামী শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দেবে মাহাথিরের সরকার

১৮ মে, দ্য স্টার, নিউ স্ট্রেইট টাইমস : মালয়েশিয়ায় সাধারণ নির্বাচনে বিজয়ী পাকাতান হারাপান (পিএইচ) জোটের নতুন সরকার দেশটির প্রশাসনের বেশ কয়েকটি দিকের পরিবর্তন আনার ঘোষণা দিয়েছে।

সদ্য প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়া মাহাথির মোহাম্মদ জানিয়েছেন, তিনি দেশটির প্রশাসনের পাশাপাশি ইসলামি প্রশাসনেরও পরিবর্তন আনবেন।

গত সপ্তাহে দেশটির সপ্তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণের পর তুন ড. মাহাথির মোহাম্মদ তার প্রথম ব্লগ পোস্টে লিখেন, ‘কুরআন ও সত্য হাদীস অনুযায়ী ইসলামি শিক্ষার ওপর পিএইচ সরকার গুরুত্ব দেবে।’

পোস্টে তিনি পবিত্র রমযান মাসের পাশাপাশি কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই বারিশান ন্যাশনাল (বিএন)থেকে পিএইচ’র থেকে ক্ষমতা রূপান্তর সম্পর্কেও লিখেছেন তিনি।

ড. মাহাথির বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, শান্তিপূর্ণ ও সুসংগঠিত পরিবেশে মুসলমানরা পবিত্র রামাদান মাসে রোজা রাখার আরেকটি সুযোগ পেয়েছেন। ১৪ তম সাধারণ নির্বাচনে সরকারের পরিবর্তনের পর এটি আরো গুরুত্বপূর্ণ।’

তিনি আরো বলেন, ‘মালয়েশিয়ার সকল নাগরিক দেশের একতা ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করার দায়িত্ব অনুভব করে। পুলিশ ও সেনাবাহিনী দেশের শান্তি ও নিরাপত্তা বজায় রাখতে তাদের ভূমিকা পালন করছে।’ মাহাথির আশা প্রকাশ করেন যে রোজার মাসটিতে মুসলমানরা তারাবিহ নামাজ এবং কুরআন অধ্যয়নের মাধ্যমে উপকৃত হবে।

তিনি কুরআনের অর্থ বুঝতে চেষ্টা করার এবং তাদের আয়াতসমূহকে কেবল মুখস্ত না করতে মুসলিমদের প্রতি আহ্বান জানান।

এছাড়াও, ডা. মাহাথির নতুন সরকারকে সমর্থন করার জন্যও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘ইনশাআল্লাহ রমযানে এই মহিমান্বিত মাসে আমরা আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালার নির্দেশনা লাভ করব যাতে আমাদের প্রতিটি কর্মই আর্শিবাদপ্রাপ্ত হয়।’

গত বুধবার (৯ মে) মালয়েশিয়ায় ১৪তম সাধারণ নির্বাচনে ঐতিহাসিক জয় পান দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। তার এই বিজয় ব্রিটেন থেকে দেশটির স্বাধীনতা লাভের ৬১ বছরের মধ্যে সরকার প্রথম পরিবর্তনের দরজা খুলে দেয়।

এর মধ্যদিয়ে ক্ষমতা হারায় দীর্ঘ ৬০ বছর ক্ষমতায় থাকা বারিসান ন্যাশনাল। মাহাথির এই বারিসান ন্যাশনালের নেতা হিসেবেই দীর্ঘদিন ক্ষমতায় ছিলেন।

ভোটের এই ফলাফল অনেকটা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি রাজনৈতিক ভূমিকম্পের মতো, যেখানে দীর্ঘদিন ধরে এক পক্ষের শাসনের প্রবণতা রয়েছে এবং সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এই প্রবণতা আরো বেশি কর্তৃত্ববাদী শাসনের দিকে মোড় নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক নির্বাচিত নেতা হিসেবে ইতিহাস গড়েন মাহাথির মোহাম্মদ। এর আগে টানা প্রায় ২২ বছর মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন তিনি। ২০০৩ সালে তিনি ক্ষমতা থেকে সরে যান। গত ৯ মে বুধবার অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের রাজনৈতিক জোট বারিসান ন্যাশনালকে (বিএন) হারিয়ে মাহাথিরের নেতৃত্বাধীন জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভের পর দেশটিতে শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছিল। তবে সব আশঙ্কার অবসান ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত শপথ নিলেন মাহাথির।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ