ঢাকা, শনিবার 19 May 2018, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মতিঝিল আইডিয়ালে ১৮০৯-এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫৬৬ জন

স্টাফ রিপোর্টার: মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় ১ হাজার ৮০৯ জন শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ হাজার ৫৬৬ জন। ফল প্রকাশের দিন একটার দিকে টাঙিয়ে দেয়া হয় এবারের পরীক্ষার ফল। এবারও ভালো রেজাল্ট করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ভালো ফল করলেও শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনন্দের ঘাটতি দেখা গেছে।  অধ্যক্ষ বললেন, এবারের প্রশ্ন ফাঁসের কারণে দুশ্চিন্তায় ছিল মেধাবীরা।  
মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহান আরা বেগম জানান, এবারের এসএসসি পরীক্ষায় এ কলেজ থেকে ১ হাজার ৮০৯ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। দু’জন পরীক্ষার্থী একটি করে পরীক্ষা দেয়নি। এ বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১ হাজার ৫৬৯ জন ও বাণিজ্য বিভাগ থেকে ২৪০ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ হাজার ৫৬৬ জন পরিক্ষার্থী। গত বছর ১ হাজার ৫১১ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১ হাজার ৩৭১ জন।
এক প্রশ্নের জবাবে অধ্যক্ষ শাহান আরা বেগম বলেন, ফলাফলে প্রশ্ন ফাঁসের কোনো প্রভাব পড়েনি এ কথা বলা যাবে না। এতে প্রকৃত মেধাবীরা আশাহত হয়েছে। তারা দুশ্চিন্তার মধ্যে ছিল।
পরীক্ষার্থীদের কম উপস্থিতির ব্যাপারে কয়েকজন অভিভাবক জানান, মুঠোফোনে এসএমএস করে ফলাফল পাওয়া যায়। তাই পরীক্ষার্থীরা ফল প্রকাশের দিন ক্যাম্পাসে কম আসে।
জিপিএ-৫ পেয়েছে বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থী সাইফুল আলম। ফলাফলে খুশি হওনি জানতে চাইলে সাইফুল আলমের জবাব, জিপিএ-৫ হলেও খুব বেশি খুশি হতে পারেনি। প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার ঘটনায় আমি ব্যাথিত হয়েছি। হতাশায় দিন কেটেছে। এভাবে প্রশ্ন ফাঁস হওয়া বন্ধ হওয়া উচিত।
মিথিলা মোস্তফা নামের বিজ্ঞান বিভাগের আরেক পরিক্ষার্থী জানান, আমি জিপিএ-৫ পেয়েছে। এ জন্য অবশ্যই খুশি কিন্তু মেধাবী হিসাবে পরিচিত নন এমন অনেকে প্রশ্ন পেয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছে। এটা মানতে কষ্ট হচ্ছে।
এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় একের পর এক প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় সারা দেশে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ যাচাই-বাছাইয়ে গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসএসসি পরীক্ষায় ১৭টি বিষয়ের মধ্যে ১২ টিতেই নৈর্ব্যক্তিক (এমসিকিউ) অংশের ‘খ’ সেট প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। তবে শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে পুনরায় পরীক্ষা নেয়া হবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ