ঢাকা, শনিবার 19 May 2018, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কুমারখালীতে এসএসসিতে সাফল্যের শীর্ষে ১৬২ বছরের প্রাচীন এম.এন মাধ্যমিক বিদ্যালয়

কুমারখালী (কুষ্টিয়া) : কুমারখালী এম, এন পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ -সংগ্রাম

মাহমুদ শরীফ, কুমারখালী (কুষ্টিয়া): ১৬২ বছরের প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কুমারখালী এম.এন. পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যাল প্রতি বছরের মতো ২০১৮ সালেও এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে গৌরবময় সাফল্য ধরে রেখেছে। অন্যদিকে, এবার ফলাফলে কিছুটা পিছিয়ে গেছে ১৫৫ বছরের প্রাচীন জাতীয়করণের তালিকাভুক্ত কুমারখালী বালিকা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়।
চলতি বছর ঐতিহ্যবাহী কুমারখালী এম, এন পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৫৩ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১৪২ জন পাস করে। পাশের হার ৯২.৮১ শতাংশ।
এদের মধ্যে ১১ জন গোল্ডেন জিপিএ ৫ এবং ২০ জন জিপিএ ৫ অর্জন করেছে। এ ছাড়াও ভোকেশনার শাখায় ১৪০ জনের মধ্যে পাস করেছে ১০৬ জন। পাশের হার ৭৫.৭১ শতাংশ। এদের মধ্যে  মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ১৬ জন শিক্ষার্থী।
উপজেলার আরেক ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (১৫৫ বছর) কুমারখালী বালিকা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৭৮ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১৪২ জন পাস করে। পাশের হার ৭৯.৭৮ শতাংশ। এদের মধ্যে গোল্ডেন জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ জন এবং জিপিএ ৫ পেয়েছে ১২ জন শিক্ষার্থী। বালিকা বিদ্যালয়ের ভোকেশনার শাখায়  ৬৩ জনের মধ্যে পাস করেছে ২৪ জন। পাশের হার ৩৮.০৯ শতাংশ। এদের মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৫ জন। চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় ফলাফলের দিকদিয়ে কিছুটা পিছিয়ে যাওয়া বিষয়ে কুমারখালী বালিকা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষক আবুল কাসেম বলেন, পরীক্ষার ভ্যেনুসহ অভ্যন্তরীন নানাকারণে এবার ফলাফলের দিকদিয়ে কিছুটা বিপর্যয় হয়েছে। 
অন্যদিকে, এম, এন পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ফিরোজ মো: বাসার বলেন, শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে প্রতি বছরের মতো এবারো গৌরবময় সাফল্য ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছি। সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টায় ভবিষ্যতে ভালো ফলাফলের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সচেষ্ট থাকবো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ