ঢাকা, মঙ্গলবার 22 May 2018, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৫ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শেয়ারবাজার অবশেষে থামলো পতন

স্টাফ রিপোর্টার: অবশেষে পতন থামলো। টানা ১৩ কার্যদিবস দরপতনের পর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএস্ই) মূল্য সূচক কিছুটা বেড়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ।
গতকাল সোমবার লেনদেনের শুরুতে ডিএসইর সূচক নি¤œমুখী থাকলেও সকাল সাড়ে ১০টার পর ঘুরে দাঁড়ায় সূচক। এরপর লেনদেন হওয়া সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় মূল্যসূচক বাড়ে। দিনের লেনদেন শেষে বাজারে ১৯৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৯৪টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির দাম।
মূল্যসূচক ও অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের দর বৃদ্ধির পাশাপাশি বাজারে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৬১ কোটি ৮০ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৩৯৫ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। সে হিসাবে আগের দিনের তুলনায় লেনদেন বেড়ছে ১৬৫ কোটি ১৪ লাখ টাকা।
দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২২ পয়েন্ট বেড়ে পাঁচ হাজার ৪১৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ সূচক দুই পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ২৬৮ পয়েন্টে। তবে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে। এ সূচকটি এক পয়েন্ট কমে দুই হাজার সাত পয়েন্টে অবস্থা করছে।
টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব চেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিংয়ের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৮ কোটি ৫৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকোর ২০ কোটি ৯৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। লেনদেনে এরপর রয়েছে- স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাল, মুন্নু সিরামিক, লিগাসি ফুটওয়্যার, ইফাদ অটোস, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এবং কেয়া কসমেটিক।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্য সূচক সিএসসিএক্স ৩৩ পয়েন্ট বেড়ে ১০ হাজার ৯৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারে লেনদেন হয়েছে ২৯ কোটি ৭১ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২২৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৭টির দাম বেড়েছে। দাম কমেছে ৮৫টির। আর ২৫টির দাম অপরিবর্তিত ছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ