ঢাকা, শুক্রবার 25 May 2018, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৮ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিএমডাব্লিউ গাড়িতে ১৪ ত্রুটি

সংগ্রাম  ডেস্ক : বিএমডাব্লিউ গাড়ির কম্পিউটার ব্যবস্থায় রয়েছে ১৪টি ত্রুটি, চীনা এক সাইবার নিরাপত্তা গবেষণাগারের গবেষণায় উঠে এসেছে এই তথ্য। বিডিনিউজ

এই ত্রুটিগুলোর কারণে আক্রান্ত গাড়িগুলো ব্যবহারের সময় হ্যাকারদের হাতে অন্তত আংশিক নিয়ন্ত্রণ চলে যেতে পারে। 

গবেষকরা আক্রান্ত ইউএসবি স্টিক যুক্ত করার মাধ্যমে গাড়িগুলোর নিরাপত্তা লঙ্ঘনের উপায় শনাক্ত করেছেন। শুধু ইউএসবি স্টিক নয়, ব্লুটুথ আর গাড়িগুলোর নিজস্ব ৩জি/৪জি ডেটা লিঙ্কের মতো মাধ্যমগুলো দিয়েও এই নিরাপত্তা লঙ্ঘন সম্ভব, উল্লেখ করা হয়েছে বিবিসি’র প্রতিবেদনে।

বিএমডাব্লিউ এই ত্রুটিগুলো সমাধানে কাজ করছে বলে জানানো হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহকদেরকে সফটওয়্যার আপডেট আর সামনের মাসগুলোতে জার্মান প্রতিষ্ঠানটির আনা অন্যান্য পদক্ষেপের দিকে নজর রাখতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। 

চীনা প্রযুক্তি জায়ান্ট টেনসেন্ট অধীনস্থ কিন ল্যাব ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে তাদের গবেষণা শুরু করে। এক বছরেরও বেশি সময় পর তারা বিএমডারিøউ গাড়ি নিয়ে পাওয়া এই তথ্য প্রকাশ করলো।

গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি জানায়, গাড়িটির তিনটি অংশের মধ্যেই অধিকাংশ ত্রুটি পাওয়া গিয়েছে। এই অংশগুলো হচ্ছে- ইন্টারনেটযুক্ত ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম, টেলিম্যাটিক্স কনট্রোল ইউনিট আর সেন্ট্রাল গেইটওয়ে মডিউল।

এই ত্রুটিগুলো সমাধানে বিএমডাব্লিউকে আরও সময় দিতে ২০১৯ সাল পর্যন্ত নিজেদের গবেষণার পুরো ফলাফল প্রকাশ করবেন না গবেষকরা। তারা বলেন, “কারিগরিভাবে বলতে গেলে, কয়েকশ’ মিটার দূর থেকে এই আক্রমণ চালানো সম্ভব, এমনকি গাড়িটি ড্রাইভিং  মোডে থাকাকালীনও।”

বিএমডাব্লিউ গাড়ির কয়েকটি মডেলে এই ত্রুটিগুলো রয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এর মধ্যে অন্তত আই, এক্স, ৩, ৫ এবং ৭ সিরিজের মডেলগুলো রয়েছে।

বিএমডাব্লিউ’র এক মুখপাত্র বলেন, “আমরা যে  কোনো সাইবার নিরাপত্তা ত্রুটি শনাক্ত করতে ও বুঝতে টেনসেন্ট-এর সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছি।” সব ত্রুটির কথা স্বীকার করে প্রতিষ্ঠানটি কিন ল্যাব-কে তাদের কাজের জন্য চলতি সপ্তাহের শুরুতে ‘আইটি রিসার্চ’ পুরস্কার দিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ