ঢাকা, বুধবার 20 June 2018, ৬ আষাঢ় ১৪২৫, ৫ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজর
Online Edition

শান্তিনিকেতনে একমঞ্চে হাসিনা-মোদি-মমতা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতনে শুক্রবার সাক্ষাৎ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠান উপলক্ষে তারা জড়ো হন।

প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা শুক্রবার সকাল ৮টা ৫২ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন। 

বিমানটি স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে কলকাতার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। 

নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার পর হেলিকপ্টারযোগে শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাকে অভ্যর্থনা জানান বিশ্বভারতীর উপাচার্য অধ্যাপক সবুজ কলিসেন। 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রবীন্দ্র ভবনে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবীন্দ্র চেয়ারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

পরে শেখ হাসিনা এবং নরেন্দ্র মোদি এক সাথে সমাবর্তন অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি যৌথভাবে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কলকাতায় ফিরে জোড়াসাঁকোর 'ঠাকুর বাড়ি' পরিদর্শন করবেন। পরে স্থানীয় ব্যবসায়ী নেতারা তার সাথে সাক্ষাৎ করবেন।

শেখ হাসিনা সাহিত্যে ডক্টরেট ডিগ্রি গ্রহণে শনিবার আসানসোলের কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন।

অনুষ্ঠান শেষে কলকাতায় ফিরে প্রধানমন্ত্রী নেতাজি জাদুঘর পরিদর্শন করবেন। তিনি সেখানে নেতাজির বিছানায় ফুলের শুভেচ্ছা জানাবেন এবং দর্শনার্থী বইতে স্বাক্ষর করবেন।

প্রধানমন্ত্রী শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে দেশে ফিরবেন।-ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ