ঢাকা, শনিবার 26 May 2018, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৯ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গাইবান্ধায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুল ছাত্রসহ দু’জনের মৃত্যু

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: গাইবান্ধা সদর উপজেলার বল-মঝাড় ইউনিয়নের খামার বল-মঝাড় গ্রামে  সোমবার দুপুরে বৈদ্যুতিক ফ্যান লাগাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বেলাল হোসেন (১৫) নবম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্র ও আইজল মিয়া (৪৫) নামের এক কাঠমিস্ত্রীর মারা গেছে। বেলাল হোসেন ওই গ্রামের শফিউল ইসলামের ও প্রতিবেশী আইজল মিয়া মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে।
আইজল মিয়া ও বেলাল হোসেন সম্পর্কে চাচা ভাতিজা। বেলাল হোসেন ধানঘড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র। সে বর্তমানে একটি ইলেকট্রিশিয়ানের দোকানে বিদ্যুতের কাজ শিখছিল। 
গাইবান্ধা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মো. শাহরিয়ার জানান, কয়েকদিন আগে আইজল মিয়া তার বাড়ীতে সংযোগ নেন। সোমবার তিনি বাড়িতে বৈদ্যুতিক ফ্যান লাগানোর জন্য বেলাল হোসেনকে ডেকে নেন। সে ঘরে ফ্যান লাগানোর সময় সেটি বিদ্যুতায়িত হয়ে গেলে বেলাল বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়। তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে আইজল মিয়াও বিদ্যুতায়িত হন এবং ঘটনাস্থলেই মারা যান।এদিকে
তিস্তা নদীতে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে
সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় তিস্তা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার  করেছে এলাকাবাসী। জানা গেছে গত সোমবার উত্তর শ্রীপুুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে শোয়াইব (৫) তিস্তা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হয়।
অনেক খোঁজাখুঁজির পর মঙ্গলবার দুপুরে একই গ্রামের তিস্তার পাড়ে তার লাশ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী তার লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে লাশ দাফন করার অনুমতি দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ