ঢাকা, মঙ্গলবার 29 May 2018, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ১২ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

এমন ভাবনার কদর করি

ভারতে গরু জবাই থেকে শুরু করে বিভিন্ন বিষয়ে যখন অসহিষ্ণুতা চলছে, তখন ইসলামের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:)-এর প্রশস্তি গেয়ে চলেছেন এক হিন্দু পন্ডিত। মুম্বাইয়ে তার কবিতায় উঠে এসেছে সেই প্রশস্তি। ৬৮ বছর বয়সী সাগর ত্রিপাঠী নিজেকে পরিচিত করেছেন শায়েরি বা কবিতার মাধ্যমে। তার কবিতায় স্রষ্টার প্রশংসার সাথে লক্ষ্য করা গেছে মুহাম্মদ (সা:)-এর প্রশস্তি। ত্রিপাঠী মনে করেন, নবী (সা:) শুধু মুসলমানদের নন, তিনি বিশ্ব মানবতার। তাই তার প্রশস্তিতে কোনো ভুল নেই। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রচারক হিসেবেও তিনি বিবেচনা করেন নবী মুহাম্মদ (সা:)কে। বাবরি মসজিদের স্থানে রামমন্দির নির্মাণের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটি এখন আদালতে বিচারাধীন বিষয়, আমি বেশি কিছু বলতে চাই না। তবে এটুকু বলতে পারি, যদি মানুষ তাদের অহমবোধ ছাড়ে, আর রাজনীতিকেরা দূরে থাকে, তবে এই সমস্যার সমাধান সহজেই সম্ভব।’
সম্প্রতি টাইমস অব ইন্ডিয়ায় সাগর ত্রিপাঠীর ওই বক্তব্য প্রকাশিত হয়েছে। ভারতের বর্তমান অসহিষ্ণু পরিবেশে সাগর ত্রিপাঠীর বক্তব্যে উদারতার সূর লক্ষ্য করা যায়। তার মধ্যে একটা কবি মন আছে বলেই হয়তো তিনি সত্য ও সুন্দরকে উপলব্ধি করতে সক্ষম হয়েছেন। তবে বাবরি মসজিদ প্রসঙ্গে তিনি যে মন্তব্য করেছেন, তাতে দর্শন ভাবনার পাশাপাশি তার রাজনৈতিক অভিজ্ঞানের পরিচয়ও পাওয়া যায়। তিনি বলেছেন, মানুষ অহমবোধ থেকে সরে আসলে এবং রাজনীতিকরা দূরে থাকলে এই সমস্যারও সমাধান সহজেই সম্ভব।
ত্রিপাঠীর বক্তব্যে ভারতের রাজনীতিকদের একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য স্পষ্টভাবে উঠে এসেছে। শুধু ভারতেই নয়, এমন নেতিবাচক বৈশিষ্ট্য বর্তমান পৃথিবীর সব দেশেই কম-বেশি লক্ষ্য করা যায়। এ কারণেই হয়তো বর্তমান সময়ে রাজনীতি এবং রাজনীতিকরা মানুষের কাছে তেমন মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত নেই। এটা মোটেও ভাল খবর নয়। আমরা এর পরিবর্তন চাই। এ ক্ষেত্রে যাদের করণীয় আছে তারা এগিয়ে আসবেন কী?

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ