ঢাকা, শুক্রবার 1 June 2018, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ১৫ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দারিদ্র্য সংঘাত ও বৈষম্যের ঝুঁকিতে বিশ্বের ১২০ কোটি শিশু

সেভ দ্যা চিলড্রেনের হিসাব মতে বিশ্বে ১২০ কোটি শিশু দারিদ্র্য, সহিংসতা ও ভয়াবহ যুদ্ধের ঝুঁকিতে

৩১ মে, বিবিসি : দারিদ্র্য, সংঘাত ও কন্যাশিশুর প্রতি বৈষম্যের ঝুঁকিতে রয়েছে বিশ্বের মোট শিশুর অর্ধেক। সেভ দ্য চিলড্রেন প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১২০ কোটি শিশু আলাদাভাবে এই তিনটি ঝুঁকিতে আছে। এদের মধ্যে ১৫ কোটি ৩০ লাখ শিশু একসঙ্গে তিনটি ঝুঁকির মুখে রয়েছে।

১ জুন আন্তর্জাতিক শিশু দিবসকে সামনে রেখে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সেভ দ্য চিলড্রেন। এতে বলা হয়েছে, দারিদ্র্য কবলিত দেশগুলোতে ঝুঁকির মুখে বাস করছে প্রায় ১০০ কোটি শিশু, যুদ্ধ ও সংঘাত ২৪ কোটি শিশুর জীবনকে প্রভাবিত করছে এবং নারীদের বিরুদ্ধে বৈষম্য স্বাভাবিক বিষয় এমন দেশে ৫৭ কোটি ৫০ লাখ কন্যাশিশু রয়েছে ঝুঁকির মুখে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এসব শিশুদের শৈশব ও ভবিষ্যতের সম্ভাবনা লুট হয়ে গেছে।

বুধবার প্রকাশিত জরিপ প্রতিবেদন অনুসারে, ১৭৫টি দেশের মধ্যে ৯৫টিতে শিশুদের পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। তবে অবনতি ঘটেছে ৪০ দেশে।

শিশুরা কতটুকু মৃত্যু ঝুঁকির মুখে আছে, অপুষ্টি, শিক্ষার অভাব, বাল্যবিবাহ এবং শিশু শ্রমের উপর ভিত্তি করে দেশগুলোর র‌্যাংকিং নির্ধারণ করা হয়েছে। সূচক অনুসারে শিশুদের অবস্থার সবচেয়ে বেশি উন্নতি হয়েছে সিঙ্গাপুর ও স্লোভেনিয়াতে। এই দুটি দেশে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে যৌথভাবে অবস্থান করছে। পরে রয়েছে নরওয়ে, সুইডেন ও ফিনল্যান্ড।

সূচকের একেবারে নিচের সারিতে হয়েছে নাইজার, মালি ও সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক। তালিকার একেবারে নিচের দশটি দেশের মধ্যে আটটিই পশ্চিম ও সেন্ট্রাল আফ্রিকার।

সেভ দ্য চিলড্রেনের সূচকে উঠে এসেছে, বিশ্বে অর্থনীতি ও সামরিক পরাশক্তি হলেও যুক্তরাষ্ট্র (৩৬), রাশিয়া (৩৭) ও চীন (৪০) পশ্চিম ইউরোপীয় দেশগুলোর পেছনে রয়েছে।

সংস্থাটি ১০টি মূল প্রবণতা চিহ্নিত করেছে যেগুলোতে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।

প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সংঘাত ও নিপীড়নের কারণে বিশ্বে প্রতি মিনিটে ২০ জন মানুষ বাস্তুচ্যুত হচ্ছে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ