ঢাকা, শুক্রবার 1 June 2018, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ১৫ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রমযান সিয়াম সাধনার মাধ্যমে মানুষের আত্মিক ও নৈতিক মান উন্নয়ন করে

সিলেট ব্যুরো : ইবনে সিনা হাসপাতাল সিলেট লিমিটেডের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বুধবার নগরীর আমান উল্লাহ কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত ইফতার মাহফিল পূর্ব আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন হাসপাতালের চেয়ারম্যান মাওলানা হাবিবুর রহমান।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, রমজান সিয়াম সাধনার মাধ্যমে মানুষের আত্মিক ও নৈতিক মান উন্নয়ন করে। বর্তমানে সমাজ, দেশ ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে যে অস্থিরতা বিরাজ করছে তার একমাত্র কারণ মানুষের নৈতিকতার অধঃপতন। আত্মিক ও নৈতিক মান উন্নয়ন করতে হলে কুরআন ও রাসূল (সঃ) এর সুন্নাহর আলোকে প্রত্যেকটি মানুষের জীবনকে সাজাতে হবে। রমজান আমাদেরকে সে শিক্ষাই দেয়। ব্যক্তি জীবন থেকে নিয়ে রমযানের শিক্ষাকে কাজে লাগাতে পারলে রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিক জীবনে শান্তি প্রতিষ্টা সম্ভব। বক্তারা বলেন , ইবনেসিনা হাসপাতাল সিলেটের স্বাস্থ্য খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার পাশাপাশি সমাজের অসহায় দরিদ্র মানুষের কল্যানে কাজ করছে।

হাসপাতালের ম্যানেজার (মার্কেটিং) মোহাম্মদ ওবায়দুল হকের পরিচালনায় ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ওসমানী হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মাহবুব আলম। উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এডভোকেট মো. লালা, সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খন্দকার শিপার আহমদ, সিলেট সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর মো. রাজিক মিয়া, রেজওয়ান আহমদ, দিনার খান হাসু, গোলাপগন্জ উপজেলা চেয়ারম্যান হাফিজ নজমুল ইসলাম, ফেঞ্চুগন্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ আল হোসাইনসহ জনপ্রতিনিধি প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, চিকিৎসক, করপোরেট ক্লায়েন্ট, প্রখ্যাত আলেম উলামা, হাসপাতালের পরিচালক ও শেয়ার হোল্ডারসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন হাসপাতালের পরিচালক (মেডিকেল সার্ভিসেস) ডা: রুকনুল ইসলাম চৌধুরী। ইফতার মাহফিলে হাসপাতালের চেয়ারম্যান মাওলানা হাবিবুর রহমান সবাইকে উপস্থিত হওয়ায় কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, পবিত্র রমজান মাসে মানবতার মুক্তির সনদ মহাগ্রন্থ আল কুরআন নাজিল হয়েছে। কুরআন নাজিলের কারণে রমজান মাস অন্যান্য মাসের চেয়ে অধিক সম্মানিত। দোয়া পরিচালনা করেন শায়খ মাওলানা ইসহাক আল মাদানী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ