ঢাকা, রোববার 3 June 2018, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ১৭ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চুকনগরে একশ’ বছর আগের মানুষের কঙ্কালের সন্ধান

খুলনা অফিস: খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগরে আনুমানিক একশ’ বছর আগের মানুষের একটি কঙ্কালের সন্ধান পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে নরনিয়া গ্রামের মোড়লপাড়ার মসজিদে পূর্বপাশে এ কঙ্কালের সন্ধান পাওয়া যায়। কঙ্কলটি এক নজর দেখার জন্য ঘটনাস্থলে হাজার হাজার উৎসুক জনতা ভিড় করছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার চুকনগর শহর হতে পশ্চিম দিকে নরনিয়া মহিলা মাদরাসার সন্নিকটে ‘বায়তুল নরনিয়া আফউ জামে মসজিদ’ নামে মোড়লপাড়ার মসজিদের পূর্ব পাশে বাথরুমের হাউস খনন করছিল একই গ্রামের হোসেন মহলদার, আব্দুল কুদ্দুস ও কামরুল ইসলাম মোল্যা। হাউস খনন করতে করতে তারা ৩/৪ হাত মাটির নিচে গেলে হঠাৎ আব্দুল কুদ্দুস মানুষের কঙ্কালের মাথা দেখতে পান। এ সময় তারা মসজিদের ঈমাম মাওলানা মনিরুল ইসলামকে বিষয়টি বললে তিনি ঘটনাস্থলে এসে সকলে মিলে সাবধানতার সাথে মাটি খুঁড়ে পরিপূর্ণ একজন মানুষের কঙ্কাল দেখতে পান। অবিকল মানুষ মারা যাওয়ার সময় যেভাবে কবরে রাখা হয়। ঠিক সেইভাবে কঙ্কালটি মাটির ওপর ছিল। শুধু গায়ের মাংস ছাড়া অবিকলভাবে মাথা, দাঁত, হাত, পাসহ শরীরের হাড়গুলো ছিল। হাড়গুলো কোনো দিকে একটুও নড়চড় হয়নি। প্রতিটি অঙ্গ প্রত্যঙ্গের একটি হাড়ও নষ্ট হয়নি।
মুখের দাঁতগুলো পরিষ্কার চকচক করছিল। এরপর বিষয়টি মসজিদ কমিটির লোকজন দেশের সকল ফতোয়া বোর্ডসহ ওলামায়ে কেরামগণকে অবহিত করেন। তারা জানতে চান মানুষের কঙ্কালটি অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে কবর দিয়ে ওইখানে বাথরুমের হাউস খনন করা যায় কিনা?
জানা যায়, মসজিদটি ১৯০৬ সালে নির্মাণ করা হয়। সেই হিসেবে ওই গ্রামের বারিক গাজী নামে প্রায় ১শ’ বছরের বৃদ্ধ বলেন, যেহেতু মসজিদটি প্রায় ১১২ বছর আগে নির্মিত সেহেতু মানুষটি তারও আগে কবর দেয়া হয়েছে।
তাই মানুষের কঙ্কালটি এক নজর দেখার জন্য ঘটনাস্থলে হাজার হাজার উৎসুক জনতা ভিড় করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ