ঢাকা, সোমবার 4 June 2018, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ১৮ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

স্বাগত জানানোর অঙ্গীকার আনোয়ার ইব্রাহিমের

৩ জুন, দ্য স্ক্রাম ডটকম : মালয়েশিয়ার বর্তমান ক্ষমতাসীন জোটের অংশ হিসেবে আনোয়ার ইব্রাহিম ভিন্নমতকে দমন না করে তা স্বাগত জানানোর অঙ্গীকার করেছেন। যেটি তার দেশে দীর্ঘদিন ধরে অনুপস্থিত রয়েছে বলে তিনি জানান।

চলতি সপ্তাহে একটি গণমাধ্যমকে দেয়া দীর্ঘ এক সাক্ষাৎকারে আনোয়ার বলেন, পাকাতান হারাপান জোট এবং এর চার দলের মধ্যে ঊর্ধ্ব-স্তরে খুব সামান্য শ্রেণি-বিন্যাস বা অনুক্রম ছিল– যা ৯ মে’র সাধারণ নির্বাচনে বারিসান ন্যাশনাল জোট থেকে বিশাল পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।বারিসান ন্যাশনাল ‘ইউনাইটেড মালে ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন’ বা ‘উম্মু’ দ্বারা প্রভাবিত ছিল এবং তাদের সঙ্গে বৃহত্তর জোট গঠনইসাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের পরাজয়ের মূল কারণ বলে কিছু সমালোচক মনে করছেন। কুয়ালালামপুরে আনোয়ার ইব্রাহিম তার পিপলস জাস্টিস পার্টির সদর দফতরে ৪৫ মিনিটের সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘পাকাতান হারাপানের মধ্যে সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক পরিবেশ মালে ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ও বারিসান ন্যাশনাল থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন।’বারিসান ন্যাশনালের ছোট ছোট পার্টির বিষয়ে আনোয়ার বলেন, ‘মালে ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন কর্তৃত্বপরায়ণ নীতির ভিত্তিতে পরিচালিত হয় এবং এতে অন্যরা আরো অনুগত ও ভীরু। কিন্তু পাকাতান জোটে আমরা সবাই সমান।’প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ তার প্রথম মেয়াদে বারিসান ন্যাশনাল পার্টির নেতা হিসাবে ১৯৮১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত শক্ত হাতে মালয়েশিয়াকে শাসন করেন। তার বিরুদ্ধেও স্বৈরাচারী শাসনের অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে আনোয়ার বলেন, ‘মাহাথির মোহাম্মদ ভিন্নমত গ্রহণের এই রাজনৈতিক সাংস্কৃতিকে মেনে নিয়েছেন ও নিজের মধ্যে বিশাল পরিবর্তন এনেছেন।’তিনি বলেন, ‘আপনি যখন তরুণদের সঙ্গে ডিল করবেন, তখন আপনাকে তাদের বুঝতে হবে, তাদের সুযোগ দিতে হবে। যদিও সবসময় তাদের সঙ্গে একমত হওয়া সহজ নয়। মাঝে মাঝে আমিও অসম্মতি প্রকাশ করি।এমনকি নুরুল ইজাহাও (আনোয়ারের কন্যা) আমার সঙ্গে এ বিষয়ে একমত পোষণ করে।’নুরুল ইজাহা তৃতীয় মেয়াদে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আনোয়ার ইব্রাহিম কারাগারে যাওয়ার পর থেকে তার আসন থেকে নুরুল ইজাহা নির্বাচিত হয়ে আসছেন।

আনোয়ার বলেন, ‘কিন্তু এটি একটি ভিন্ন প্রজন্ম। আপনি যদি তাদের সাফল্য দেখতে চান, তাহলে অবশ্যই তাদের সুযোগ করে দিতে হবে।’

যাইহোক, আনোয়ার ইব্রাহিম এখন মাহাথিরের স্থান দখলের অপেক্ষায় আছেন। আগামী ১০ জুলাই মাহাথির ৯৩ বয়সে পা রাখবেন।

পাকাতান হারাপান জোট তার ঘোষণাপত্রে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যে আনোয়ার দুই বছরের মধ্যে মহাথিরের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

সাক্ষাৎকারে আনোয়ার ইব্রাহিম ক্ষমতা হস্তান্তরের বিস্তারিত পরিকল্পনার বিষয়ে বলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

তবে, তিনি স্পষ্টকরে বলেন, পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনে তিনি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে প্রার্থী হবেন।

তিনি বলেন, ‘যদি আল্লাহ চায় এবং স্বাস্থ্য ভাল রাখেন, তবে পরবর্তী নির্বাচনে আমি নেতৃত্ব দিতে চাই।’

দেশের অন্তর্নিহিত বর্ণবাদী রাজনীতিতে – বারিশান ল্যাশানলের প্রধান দলগুলী সাম্প্রদায়িক ছিল। এব্যাপারে আনোয়ার বলেন, বর্ণবাদী রাজনীতির প্রথার অবসান হবে বলে আমি আশাবাদী।

তিনি বলেন, ‘এজন্য অবশ্যই সময় লাগবে। এখানে সংবেদনশীলতা এখনও বিরাজমান রয়েছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ