ঢাকা, সোমবার 4 June 2018, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ১৮ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সংশোধিত নির্বাচনী আচরণবিধি আইন মন্ত্রণালয়ে

স্টাফ রিপোর্টার: সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এমপিদের প্রচারণা চালানোর সুযোগ দেয়া বিষয়ক সংশোধিত নির্বাচনী আচরণ বিধি ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।
গতকাল রোববার দুপুরে ইসির অতিরিক্ত সচিব মো. মোখলেসুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, আজকে গেছে অলরেডি। আইন মন্ত্রণালয় থেকে আসার পর কোনো সমস্যা না থাকলে গেজেট আকারে প্রকাশ করা হবে।
এর আগে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের অনুরোধে বেশ কয়েক দফা  বৈঠক করে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে এমপিদের অংশ নেয়ার পক্ষে মত দেয় নির্বাচন কমিশনাররা। তবে একমাত্র নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার এ সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অবস্থান নেন। এর পক্ষে যুক্তি দিয়ে (নোট অব ডিসেন্টে) তিনি বলেছিলেন, এমপিদের প্রচারে অংশ নেয়ার সুযোগ দেয়ায় লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নস্যাৎ হবে। এতে সব মহলে নির্বাচন কমিশন নিন্দিত হবে বলেও সতর্ক করেছিলেন তিনি। এরপর অবশ্য এক সংবাদ সম্মেলনে সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেছিলেন, স্থানীয় এমপিরা এ সুযোগ পাবেন না।
এর আগে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, বিদ্যমান সিটি কর্পোরেশন আচরণ বিধিমালায় ১১ বিষয়ে সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতীকের প্রতিকৃতি ব্যবহার করতে হবে। যেমন সরাসরি আনারস নিয়ে প্রচারণা চালানো যাবে না। এ ক্ষেত্রে আনারসের প্রতিকৃতি ব্যবহার করতে হবে।
হাতপাখা, নৌকা, ধানের শীষ এগুলোর প্রতিকৃতি কী হবে বা কিভাবে শনাক্ত করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, আগে ছিল জীবন্ত কোনো কিছু নিয়ে প্রচারণা চালানো যাবে না। যেমন হাতি, ঘোড়া ইত্যাদি এখন সেখানে বলা হয়েছে ‘প্রতিকৃতি ব্যতীত অন্য কিছু নিয়ে প্রচারণা চালানো যাবে না। এর ফলে কাঠের তৈরি নৌকা বা ক্ষেত থেকে তুলে আনা ধানের শীষ নিয়ে প্রচারণার সুযোগ থাকছে না।
নির্বাচনী প্রচারণায় সংসদ সদস্যদের সুযোগ দেয়ার বিষয়ে সচিব বলেন, যেহেতু সংসদ সদস্য পদ লাভজনক নয়। তাই তাদের নাম অতি গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। তারা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রচারণা চালাতে পারবেন। তবে তারা সরকারি সার্কিট হাউস ব্যবহার করতে পারবেন না, এমন প্রস্তাব করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ