ঢাকা, বৃহস্পতিবার 7 June 2018, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২১ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সরকারের একদলীয় ফ্যাসিবাদী চরিত্র অত্যন্ত নগ্নভাবে প্রকাশিত হয়েছে -মিয়া গোলাম পরওয়ার

শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের নওগা পুর্ব জেলা শাখার সভাপতি মির আবুল কালাম আজাদসহ ৬ জনকে গত ৫ জুন মহাদেবপুর উপজেলা এনায়েতপুর ইউনিয়নে মহীনগর গ্রামে এক ইফতার মাহফিল থেকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতারে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন এর কেন্দ্রীয় সভাপতি সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার।
গতকাল বুধবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, শ্রমিক নেতৃবৃন্দ গ্রেফতারের মধ্যে দিয়ে সরকারের একদলীয় ফ্যাসিবাদী চরিত্রই অত্যন্ত নগ্নভাবে প্রকাশিত হয়েছ। সরকার অন্যায়ভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্যই অব্যাহতভাবে সারা দেশে বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে তাদের জেলে বন্দী রেখে তাদের উপর জুলুম নির্যাতন চালাচ্ছে। নিরাপরাধ শ্রমিক নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করার মধ্য দিয়ে সরকারের ফ্যাসীবাদী চরিত্রই অত্যন্ত নগ্নভাবে প্রকাশিত হচ্ছে। সরকারের এহেন জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
তিনি আরো বলেন, সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি, আইন-শৃঙ্খলার অবনতি, শ্রমিক নেতৃবৃন্দ সহ জাতীয় নেতৃবৃন্দ এবং বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের ওপর  নির্যাতন-নিপীড়ন, রোহিঙ্গা সমস্যা ইত্যাদি ইস্যুতে দেশ বিপর্যস্ত। সামগ্রিকভাবে দেশে গণতন্ত্র বলতে কিছু নেই। বলতে গেলে সরকার অঘোষিত একদলীয় শাসন কায়েম করেছে। এসবের বিরুদ্ধে শ্রমিক সমাজকে সামগ্রিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।
মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, মহাজোট সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে গণতন্ত্রের নামে অগণতান্ত্রিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। সরকার নিজেদের নানা ব্যর্থতা ঢাকতে  শ্রমিক নেতৃবৃন্দ এবং জাতীয় নেতৃবৃন্দ সহ বিরোধীদলকে দমন করে রাজপথের আন্দোলন সংগ্রামকে মোকাবিলা করতে একটি ঘৃণ্য কৌশল হিসাবে তারা এই গ্রেফতারের রাজনীতি বেছে নিয়েছে।
বিবৃতিতে তিনি গাজীপুর ও ঢাকার ৮৫ জন শ্রমিকনেতাসহ গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের পুর্বে মুক্তি দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ