ঢাকা, শুক্রবার 8 June 2018, ২৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২২ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রস্তাবিত বাজেটে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ মূল্যস্ফীতি নির্ধারণ

 

স্টাফ রিপোর্টার : প্রস্তাবিত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাজেটে মূল্যস্ফীতি নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ। বলা হচ্ছে এই বাজেট ঘোষণার ফলে কোন পণ্যের মূল্য বাড়বে না।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বাজেটের অর্থবিলে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এ প্রস্তাব করেন।

অর্থমন্ত্রী তার বাজেট বক্তব্যে বলেন, কৃষিপণ্যের উচ্চ ফলন ও স্বাভাবিক সরবরাহ পরিস্থিতির সুবাদে খাদ্য মূল্যস্ফীতি নিম্নমুখী হলেও বিশ্ব পণ্য বাজার পরিস্থিতির প্রভাবে দেশে খাদ্য-বহির্ভূত মূল্যস্ফীতি বাড়ছে। এপ্রিল ২০১৮ সময়ে ১২ মাসের গড় হিসাবে মূল্যস্ফীতি ছিল ৫ দশমিক ৮ শতাংশ, যার মধ্যে খাদ্য ও খাদ্যবহির্ভূত মূল্যস্ফীতি ছিল যথাক্রমে ৭দশমিক ৩ ও ৩দশমিক ৫ শতাংশ। তিনি আরো বলেন, দেশে মূল্যস্ফীতি কমেছে ১২ দশমিক ৩ শতাংশ থেকে ৫দশমিক ৮ শতাংশে।

জাতীয় সংসদে বাংলাদেশের ৪৭তম বাজেট প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের এটি ১৯তম বাজেট। আর অর্থমন্ত্রী হিসাবে আবুল মাল আবদুল মুহিতের ১২তম।

বাজেট পেশের অনুমতি নিয়ে প্রথমে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পেশ করার পর শুর“ করা হয় ২০১৮-১৯ সালের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন।

সংসদে উপস্থাপনের আগে মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত হয়েছে প্রস্তাবিত বাজেটটি। দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সংসদের কেবিনেট কক্ষে মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে বাজেটটি অনুমোদন করা হয়।

এবারের বাজেটের আকার ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটের আকার ছিল চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকা

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ