ঢাকা, সোমবার 24 September 2018, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ১৩ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ইরাকের ৩০ কিলোমিটার অভ্যন্তরে তুর্কি সেনা মোতায়েন রয়েছে: আঙ্কারা

বিনালি ইলদিরিম

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম বলেছেন, ইরাকের ৩০ কিলোমিটার অভ্যন্তরে তার দেশের সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। তুর্কি সীমান্তবর্তী ইরাকের বিভিন্ন এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দি পিকেকে গেরিলাদের নির্মূল করার লক্ষ্যে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে তিনি দাবি করেছেন।

তুরস্কের টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভি’তে সরাসরি প্রচারিত এক বক্তব্যে ইলদিরিম বলেন, “এই অভিযান মার্চ মাসে শুরু হয়েছে। এখন পর্যন্ত আমরা সীমান্তবর্তী ৩০০ কিলোমিটার দীর্ঘ এলাকায় সেনা মোতায়েন করেছি। এসব সেনা ইরাকের ৩০ কিলোমিটার গভীর পর্যন্ত মোতায়েন রয়েছে।”

তুর্কি সেনারা প্রয়োজনে আরো গভীরে প্রবেশ করে ইরাকের কান্দিল, মাখমুর বা সিনজার পর্যন্ত পৌঁছে যাবে বলেও তুর্কি প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেন।

 

রজব তাইয়্যেব এরদোগান

এর একদিন আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছিলেন, তার দেশের সেনারা যেকোনো সময় ইরাকের কান্দিল শহরে সামরিক অভিযান চালাবে। তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেমান সোইলু এ সম্পর্কে বলেছেন, তার দেশের সেনারা ইরাকের কান্দিল এলাকায় পিকেকে গেরিলাদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করার ‘উপযুক্ত সময়ের অপেক্ষা’ করছে।

ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় এরবিল প্রদেশের ‘কান্দিল’ পাহাড়ি এলাকা তুরস্কের সীমান্ত থেকে সর্বোচ্চ ৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। আঙ্কারা অভিযোগ করছে, কুর্দি গেরিলারা ওই এলাকায় সদরদপ্তর স্থাপন করেছে। কুর্দি অধ্যুষিত এলাকার বৃহত্তর স্বায়ত্বশাসনের দাবিতে পিকেকে ১৯৮৪ সাল থেকে তুর্কি সরকারের বিরুদ্ধে সশস্ত্র বিদ্রোহ চালিয়ে যাচ্ছে।-পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ