ঢাকা, মঙ্গলবার 12 June 2018, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৬ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

হজ্ব ভিসার লজমেন্ট শুরু প্রায় ১০ হাজার পাসপোর্টের স্ক্যান সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার : চলতি বছর সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় হজ্ব পালনের লক্ষ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রয়োজনীয় আগাম প্রস্তুতি দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। যথাযথ প্রক্রিয়ায় হজ্ব নিবন্ধন শেষে সম্প্রতি ই-হজ্ব পদ্ধতিতে হজ্ব ভিসার পাসপোর্ট স্ক্যান শুরু হয়েছে। বিভিন্ন এজেন্সি হজ্বযাত্রীদের জন্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কাছ থেকে বিমানের টিকিট কিনছে।
ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার সকাল ১০টা পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ১০ হাজার ৩৯ জন হজ্বযাত্রীর পাসপোর্ট সৌদি দূতাবাসে ই-হজে স্ক্যান হয়েছে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনার এওবি ক্যাটাগরির চার হাজার ২৪১টি ও ৫১টি বেসরকারি এজেন্সির অবশিষ্ট পাসপোর্ট ই-হজ্ব স্ক্যান হয়। তাদের ভিসা পাওয়া সময়ের ব্যাপার মাত্র।
গত ৯ জুন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইতোমধ্যে ই-হজে পাসপোর্ট স্ক্যান করা শুরু হয়েছে। বিড়ম্বনা ও ই-ট্রাফিক ঝুঁকি এড়াতে এখনই আপনার হজ্ব এজেন্সির অধীনে হজ্বযাত্রীদের পাসপোর্ট ই-হজে স্ক্যান করার তাগিদ দেয়া হয়।
ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, ই-হজ্ব পদ্ধতিতে আগাম প্রস্তুতি দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। সৌদি আরবে বাড়িভাড়াসহ সবকাজ সম্পন্ন করে বিভিন্ন এজেন্সি স্ব স্ব হজ্বযাত্রীর ই-হজ্ব ভিসার জন্য বাংলাদেশস্থ সৌদি দূতাবাসে পাসপোর্ট স্ক্যান করছে। এ বছর বিমান বুকিং দেয়ার জন্য আগে ভাড়ার টাকা নির্দিষ্ট হজ্বযাত্রীর নামে পে-অর্ডার করাতে হচ্ছে। ফলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে বুকিং দিয়ে সেই বুকিং বাতিল না করে ইচ্ছে করলেই সে সৌদি এয়ারলাইন্সে বুকিং দিতে পারবে না। ফলে বিগত বছরের মতো বিমান টিকিট নিয়ে কোনো এজেন্সি প্রতারণা করার সুযোগ পাবে না বলে তারা মন্তব্য করেন।
চলতি বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যাবেন। তন্মধ্যে এক লাখ ২০ হাজার বেসরকারি ও সাত হাজার ১৯৮ জন সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্ব করার কথা রয়েছে। আগামী ১৪ জুলাই থেকে হজ্ব ফ্লাইট শুরু হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ