ঢাকা, মঙ্গলবার 12 June 2018, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৬ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রাইভেট কারে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা আসামী রনি ৩ দিনের রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর কলেজ গেট এলাকায় প্রাইভেট কারে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার মাহমুদুল হক রনি’র তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক আহসান হাবিব উভয়পক্ষের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। আসামী মাহমুদুল হক রনির (৩২) গ্রামের বাড়ি গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া থানার সনমানিয়া গ্রামে।
 শেরেবাংলা থানার ওসি গোপাল গণেশ বিশ্বাস জানিয়েছেন, রনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী। তার বাসা জিগাতলায়। সেখানে তিনি পরিবার নিয়ে থাকেন। তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক। আদালতে শেরেবাংলা থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম (জিআরও) জানান, গতকাল সোমবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও শেরেবাংলা থানার উপ-পরিদর্শক মিনহাজ উদ্দীন ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মাহমুদুল হক রনির সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করে তাকে আদালতে হাজির করেন। এ সময় আসামী পক্ষের আইনজীবী মো. যোনাইদ উল্লাহ শোয়েব রনির জামিন চেয়ে শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আসামীর তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।
গত শনিবার রাতে দুই তরুণী কলেজ গেট এলাকায় মাহমুদুল হকের গাড়ি (ঢাকা মেট্রো-গ ২৯-৫৪১৪) থামিয়ে তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার অনুরোধ করেন। ওই সময় গাড়ি চালাচ্ছিলেন মাহমুদুলের ব্যক্তিগত গাড়িচালক। কিছু দূর যাওয়ার পর এক তরুণীকে শিশুমেলা এলাকায় নামিয়ে দেওয়া হয়। গাড়িতে থাকা আরেকজনকে ধর্ষণ করেন মাহমুদুল। একপর্যায়ে ঘটনা টের পেয়ে রাস্তায় থাকা লোকজন গাড়ি থামিয়ে চালক ও মাহমুদুলকে পিটুনি দেয়। পিটুনির ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে, রাস্তায় থাকা লোকজন মাহমুদুলের গাড়ি আটক করে। এ সময় চালক ও মাহমুদুলকে পিটুনি দেওয়া হচ্ছিল।
এদিকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই তরুণী শেরেবাংলা নগর থানায় রোববার বিকালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধন ২০০৩)-এর ৭/৩০/৯(১) ধারায় অপহরণসহ ধর্ষণের অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ