ঢাকা, বুধবার 13 June 2018, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৭ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পিকেকে সন্ত্রাসীদের নির্মূলে ইরাকে সামরিক অভিযান চালিয়েছে তুরস্ক  ---এরদোগান

 

১২ জুন, দ্য ফিনান্সিয়াল টাইমস : গত সোমবার ইরাকের উত্তরাঞ্চলে তুরস্ক সামরিক অভিযান চালিয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোগান।

তিনি দেশটির জাতীয়তাবাদী মনোভাবকে বজায় রাখার ব্যাপারে প্রতিজ্ঞা করেন। তুর্কি কর্মকর্তারা কয়েক সপ্তাহ ধরে ইঙ্গিত দিচ্ছেলেন যে, আঙ্কারা কান্দিলে পাহাড়ি অঞ্চলে অভিযান পরিচালনা করতে পারে। এলাকাটি কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) একটি শক্ত ঘাঁটি।

পিকেকে গত ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে তুর্কি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। তুরস্ক সম্প্রতি সপ্তাহগুলোতে এ অঞ্চলে তার সেনা উপস্থিতি বৃদ্ধির পাশাপাশি বিমান হামলা শুরু করেছে।

২৪ জুনের আসন্ন সংসদ ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে একটি নির্বাচনী সমাবেশে এরদোগান বলেন, ‘আমরা আমাদের অপারেশন শুরু করেছি। আমাদের ২০ টি যুদ্ধ বিমানের সাহায্যে আমরা ১৪টি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ধ্বংস করেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের সৈন্যরা কান্দিলে গিয়েছিল, তারা আঘাত করেছে এবং সেখান থেকে তারা ফিরে এসেছে কিন্তু অভিযান এখনো শেষ হয়নি।’যাইহোক, সামরিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বৃহৎ সংখ্যক সেনা বাহিনীর কোনো চিহ্ন সেখানে নেই, যা কঠিন পর্বতমালায় একটি কার্যকর আক্রমণের জন্য প্রয়োজন হবে।

এদিকে, প্রধানমন্ত্রী বেনালি ইলদিরিম জানিয়েছেন, স্বায়ত্তশাসিত ইরাকি কুর্দিস্তানে কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকার ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে তুর্কি বাহিনী অবস্থান নিয়েছে। তুরস্কের সীমানা থেকে কান্দিল অঞ্চল প্রায় ৯৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ