ঢাকা, বুধবার 13 June 2018, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৭ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গৃহবধূকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন॥ আটক-২

কামরুজ্জামান, চরফ্যাশন (ভোলা) সংবাদদাতা : ভোলার চরফ্যাশন মাদ্রাজ ইউনিয়নে রুমা বেগম (২৫)কে গাছের সাথে বেঁধে স্বামী ও তার পরিবারের অমানুুষিক নির্যাতনের করছে।
নির্যাতিতা রুমা বেগমকে পুলিশ উদ্বার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত ২জনকে আটক করেছে। তারা হলেন-নির্যাতিতা ২ সন্তানের জননী রুমা বেগমের শশুর ছালাউদ্দিন বেপারি ও মোশারেফ হোসেন সিকদার।
সূত্রে জানা গেছে, চর-নাজিম উদ্দিন গ্রামের স্বামীর বাড়িতে রুমা বেগমকে স্বামী মো.সোহেল, শশুর ছালাউদ্দিন বেপারিসহ ৪/৫ ও তার পরিবারের লোকজনসহ রুমা কর্তৃক দায়েরকৃত নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা প্রত্যাহার করতে বুধবার দুপর ১২টায়  গাছের সাথে বেধেঁ প্রকাশ্যে অমানুষিক নির্যাতনের ঘটনায় থানা জানানো হলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে রুমাকে হাত-পা বাধাঁ ক্ষত-বিক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে।
  রুমার পিতা মজিবল মাঝি সন্ধ্যায় চরফ্যাশন প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদেরকে জানান, সোহেলের সাথে ৪বছর পূর্বে বিবাহের পর থেকে ব্যবসার জন্য দেড় লাখ টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করে।
এই টাকা দিতে না পারায় বিভিন্ন সময় আমার মেয়ের উপর সোহেল ও তার পিতা ছালাউদ্দিন বেপারিসহ পরিবারের লোকজন অমানুষিক নির্যাতন করতো। মেয়ের সুখের জন্য আমি ধার-দেনা করে জামাইকে লক্ষাধিক টাকা দিলেও আরো টাকার জন্য বিভিন্ন সময়ে তারা আমার মেয়ের উপর অত্যাচার নির্যাতন চালায়।
এ ব্যাপারে রুমা বেগম বাদী হয়ে ভোলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে একটি যৌতুক মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রুহুল আমিন উভয় পক্ষের সাথে সমঝোতার দোহাই দিয়ে সন্ধ্যার পর আটক দুই জনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বাদী পক্ষের দাবী পুলিশের সাথে আসামীদের  সমঝোতা করে আসামীদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ