ঢাকা, বৃহস্পতিবার 14 June 2018, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৮ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পুনরায় নির্বাচনের দাবি প্রত্যাখ্যান ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর

১৩ জুন, আল জাজিরা : নতুন করে নির্বাচনের দাবি বাতিল করে দিয়েছেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আবাদী। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, যারা রাজনৈতিক প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করবে তাদের শাস্তির মুখোমুখি করা হবে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এ খবর জানিয়েছে।

গত রোববার বাগদাদে ব্যালোট বাক্স রাখার সবচেয়ে গুদামে আগুন লাগার পর কয়েকজন এমপি এই নির্বাচনের ফল বাতিল করেন নতুন নির্বাচনের দাবি জানান। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অভিযুক্ত চার ব্যক্তিকে গ্রেফতারের আদেশ দিয়েছেন ইরাকে একটি আদালত। অভিযুক্তদের মধ্যে তিনজন পুলিশ সদস্য ও একজন স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের কর্মী।মঙ্গলবার আবাদি বলেন, নির্বাচন হয়ে গেছে। আরও পিছনে তাকানো হয়। নতুন সরকার গঠনের জন্য আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আবাদি অভিযোগ করে রবিবারের আগুন ইচ্ছা করে লাগানো। তিনি বলেন, যারা রাজনৈতিক প্রক্রিয়াকে হেয় করার চেষ্টা করছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনবেন দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল। তিনি আরও বলেন, পুনরায় ভোট হবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত শুধুমাত্র সুপ্রিম ফেডারেল কোর্টই নিতে পারবেন।গত মে মাসের নির্বাচনে দেশটির শিয়াপন্থী নেতা মুক্তাদা আল সদরের দল জয়ী হয়েছে। সম্ভাব্য পুনর্নির্বাচন নিয়ে ঝগড়া না করে ইরাকিদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সোমবার বিবৃতি দিয়েছেন সদর। নির্বাচনে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে ছিল মুক্তাদা আল সরদ ও ইরান সমর্থিত মিলিশিয়ার প্রধান হাদি আল আমিরির দল। মঙ্গলবার দল দুটি নিজেদের মধ্যে একটি জোট গঠনের ঘোষণা দিয়েছে।বিভিন্ন দলের মধ্যে সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা চলাকালে এই প্রথম কোনও কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হলো। শিয়াদের পবিত্র শহর নাজাফ থেকে ঘোষণাটি দেওয়া হয়। দুই শিয়া নেতা বলেন, তারা অন্যান্য জয়ী দলগুলোকেও নতুন সরকারে তাদের সঙ্গে যোগ দেওয়ার পথ খোলা রাখবেন।সদর বলেন, আমাদের বৈঠক খুব ইতিবাচক হয়েছে। আমাদের জাতি ও জনগণের দুন্দশা শেষ করার জন্য এখানে বসেছিলাম। আমাদের নতুন জোট জাতীয়তাবাদী হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ