ঢাকা, শুক্রবার 15 June 2018, ১ আষাঢ় ১৪২৫, ২৯ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আওয়ামী সরকার সংবাদপত্র ও সাংবাদিকদের ওপর দমন-পীড়ন অব্যাহত রেখেছে  ------------মির্জা ফখরুল

 

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী মহাজোট সরকার পুরনো বাকশাল নতুন আঙ্গিকে কায়েম করে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকদের ওপর নির্যাতন ও দমন-পীড়ন অব্যাহত রেখেছে। দেশের সকল গণমাধ্যম সত্য প্রচারে শংকিত থাকে, না জানি কখন সরকারের রোষানলে পড়তে হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার সংবাদপত্রের কালো দিবস উপলক্ষে গণমাধ্যমে দেওয়া এক বাণিতে তিনি একথা বলেন। ১৬ জুন ঈদ হওয়ার সম্ভাবনা এবং এক দিন আগেই এই বাণি গণমাধ্যমে পাঠানো হয়। 

 বাণীতে মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশের সংবাদপত্রের ইতিহাসে ১৯৭৫ সালের ১৬ জুন এক কালিমা লিপ্ত দিন। এদিনে তৎকালীন একদলীয় বাকশাল সরকার নাৎসী কায়দায় তাদের অনুগত ৪টি সংবাদপত্র রেখে অন্যসব পত্রিকা বন্ধ করে দিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে কর্মরত অসংখ্য সংবাদকর্মীকে বেকার করে হতাশার অতল গহব্বরে ঠেলে দিয়েছিল। পরবর্তীকালে মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক এবং আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়ে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিশ্চিত করেন। বাতিল করেন বাকশালী আমলের সকল কালাকানুন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি গণতন্ত্র রক্ষার সংগ্রামে বারবার অগ্নিপরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। বারংবার অবৈধ স্বৈরাচারী গোষ্ঠীর কবল থেকে গণতন্ত্রকে মুক্ত করেছে বিএনপি।

কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় বর্তমান আওয়ামী মহাজোট সরকার পুরনো বাকশাল নতুন আঙ্গিকে কায়েম করে সংবাদপত্র ও সাংবাদিকদের ওপর দলন ও দমন-পীড়ন অব্যাহত রেখেছে। দেশের সকল গণমাধ্যম সত্য প্রচারে শংকিত থাকে, না জানি কখন সরকারের রোষানলে পড়তে হয়। 

আমি বর্তমানে বিপন্ন গণতন্ত্র নিরাপদ করার স্বার্থে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা রক্ষার সংগ্রামে সাংবাদিক ভাই ও বোনদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার জন্য আহবান জানাচ্ছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ