ঢাকা, শুক্রবার 15 June 2018, ১ আষাঢ় ১৪২৫, ২৯ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বাস লঞ্চ ও রেলস্টেশনে উপচে পড়া ভীড় ঈদের ছুটিতে খুলনা ছাড়ছে অনেকেই

 

খুলনা অফিস : ঈদের ছুটির একদিন আগেই গ্রামমুখী খুলনার মানুষ। প্রিয়জনের সাথে ঈদ-উল-ফিতরের আনন্দ ভাগাভাগী করতে নারীর টানে ছুটছেন শহরে মানুষ। একদিন অফিস থাকলেও আগে ভাগেই ফিরছে গ্রামে। তাই গত বুধবার সরকারি ছুটির দিনে ও গতকাল বৃহস্পতিবার  নগরীর রেল  স্টেশন, সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল ও বিআইডব্লিউটিএ লঞ্চঘাটে দেখা গেছে উপচে পড়া ভীড়। কোথাও কোথাও বাসে অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই ও বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ রয়েছে।

গত বুধবার ছিল পবিত্র শবে কদরের ছুটির দিন। গতকাল অফিস আদালত খোলা থাকলেও শুক্রবার থেকে ঈদের ছুটি শুরু, তাই একদিন আগে ছুটি নিয়ে খুলনা ছাড়তে শুরু করেছে কর্মজীবী মানুষ। তবে সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল থেকে নওয়াপাড়া, ডুমুরিয়া, চুকনগর এলাকামুখী যাত্রীদের কাছ থেকে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব জায়গাতে দাঁড়িয়ে যাওয়া এবং আগের তুলনায় অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ করেছে যাত্রীরা। সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল থেকে চুকনগর ৩৫ টাকা ভাড়া তবে গতকাল যাত্রীদের কাছ থেকে নেয়া হয় ৫০ টাকা।  সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল থেকে গতকাল সপরিবারে ঈদ করতে সাতক্ষীরায় গেছেন সরকারি কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল হক। তিনি বলেন, একদিন বেশী ছুটি নিয়েছি। তাই একটু আগে ভাগেই যাচ্ছি। তেমন কোন সমস্যা না থাকলেও প্রত্যেকটি গাড়িতে তিল ধারণের ঠাঁই নেই। বাসের ছাদেও লোক নেয়া হচ্ছে। আশঙ্কায় আছি সুস্থভাবে বাড়িতে পৌঁছানো নিয়ে।

এদিকে তুলনামূলক ফাঁকা শহরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ। যে কোন অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট সবার সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ স্থাপনের জন্য খুলনায় কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের দিন এবং পূর্বের ও পরের তিন দিনসহ মোট সপ্তাহব্যাপী এ কন্ট্রোল রুম কাজ করবে।

একই সাথে নগরীতে টহলে থাকবে র‌্যাব-৬ এর মোবাইল টিম। গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ টীম সাদা পোশাকে নগরবাসীর নিরাপত্তায় বিশেষ নজরদারী রাখবে। নগরীর অভিজাত আবাসিক এলাকা, বিনোদন স্পট ও ব্যস্ততম এলাকাসমূহে একাধিক স্তরে নিরাপত্তা বলয় থাকবে।

কেএমপি’র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (ডিবি) এ এম কামরুল ইসলাম বলেন, ঈদ নিরাপত্তায় গোয়েন্দা পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় দায়িত্ব পালন করবে। অভিজাত আবাসিক এলাকা, বিনোদন স্পট ও ব্যস্ততম এলাকায় সাদা পোশাকেও নজরদারীতে থাকবে ডিবি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ