ঢাকা, শনিবার 23 June 2018, ৯ আষাঢ় ১৪২৫, ৮ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দাউদকান্দি রাঙা শিমুলিয়ায় অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পরস্পরকে দায়ী ॥ গ্রাম্য শালিসে ফয়সালা হয়নি

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) সংবাদদাতা: দাউদকান্দি উপজেলার রাঙা শিমুলিয়া গ্রামে সম্প্রতি এক অগ্নিকান্ডে তিন পরিবারের বসত ও রান্নাসহ তিনটি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। পূর্বে জায়গা সম্পত্তির বিরোধ থাকায় অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পরস্পরকে দায়ী করা হলেও নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের বক্তব্য অগ্নিকান্ডটি একটি দুর্ঘটনা মাত্র। অগ্নিকান্ডটি ঘটেছে গত ১৬ মে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। এতে প্রবাসী তাজুল ইসলামের স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার তারই সর্বমোট ১৫ লক্ষ টাকা ক্ষতি দেখিয়ে থানায় একটি অভিযোগ পেশ করেন। অভিযোগে দায়ী করা হয় একই পরিবারের নিকট আত্মীয়দের। এ কারণে এলাকার গণ্য-মান্য ব্যক্তিরা গ্রাম্য শালিসে বিষয়টি মিমাংসা করতে শনিবারসহ বেশ কয়েকবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। গতকাল রোববার সরজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে মনু মিয়ার ছেলে প্রবাসী তাজুল ইসলামের স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার অগ্নিকান্ডের জন্য বিবাদীদের দায়ী করেন। বিবাদী শহিদ মিয়াসহ অন্যরা বলেন, বাড়ির জায়গা-সম্পত্তির বিরোধ থাকায় তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে অগ্নিকান্ডে তাজুল ইসলামের বসতঘর, সুরুজ মিয়ার একটি ও ফজলু মিয়ার একটি রান্না ঘর পুড়ে যায়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তিরা জানান, তাজুল ইসলামের ঘরে গ্যাস সিলিন্ডারে ত্রুটি থাকায় গ্যাস লিক হয়ে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে এটি একটি দুর্ঘটনা মাত্র। যেহেতু একই পরিবারের মাঝে জায়গা-সম্পত্তির বিরোধ রয়েছে তাই অগ্নিকান্ডটি হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বাদী পক্ষ। জানা গেছে, থানায় অভিযোগ পেশ করলে প্রাথমিক তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে মোস্তফা কামাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। গণ্য-মান্য ব্যক্তিরা বিষয়টি মিমাংসার আশ^াস দেওয়ায় তৎক্ষণাত অভিযোগটি ডায়েরীভুক্ত করা হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ