ঢাকা, রোববার 24 June 2018, ১০ আষাঢ় ১৪২৫, ৯ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সিদ্ধিরগঞ্জে এক নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

সিদ্ধিরগঞ্জ (না:গঞ্জ) সংবাদদাতা : সিদ্ধিরগঞ্জে এক নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম নাজমা আক্তার সানজিদা (৩২)। সে নরসিংদী জেলার সাটিরপাড়া এলাকার বাসিন্দা নাদিমের স্ত্রী। নিমাইকাশারী এলাকার একটি তালাবদ্ধ ঘর থেকে শুক্রবার রাত ১০টার পর নিহতের লাশটি উদ্ধার করে থানার এস আই জয়নাল আবেদিন। নিহতের স্বামী নাদিম পলাতক রয়েছে। পুলিশের ধারণা ওই নারীকে তাঁর স্বামী হত্যা করে পালিয়েছে। এছাড়াও চলতি মাসের গত ১১ জুন থেকে গতকাল ২৩ জুন পর্যন্ত আরো ৩ জন নারী ও শিশুর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সিদ্ধিরগঞ্জের আটি হাউজিং এলাকার একটি পুকুর ও গোদনাইল বার্মাস্ট্যান্ড এলাকার ডিএনডি খাল থেকে এসব লাশ উদ্ধার করা হয়। 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই মো. জয়নাল আবেদীন জানিয়েছেন, ১ জুন নাদিম ও নাজমা দম্পতি সিদ্ধিরগঞ্জের নিমাইকাশারী বাজার এলাকার আব্দুর রহিমের ঘর ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিল। গত বুধবার দুপুরেও তাদের রান্না করতে দেখা যায়। কিন্তু এরপর থেকেই তাদের ঘরে তলাবদ্ধ দেখা যায়। শুক্রবার রাতে বাড়ির বাসিন্দারা ওই ঘর থেকে দূর্গন্ধ পাচ্ছিলো। এরপর বাড়ির মালিকের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ঘরের তালা ভেঙে ভেতরে মেঝেতে ওই নারীর অর্ধগলিত লাশ পাওয়া যায়। লাশ উদ্ধার করে রাতেই ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তার প্রাথমিক ভাবে ধারণা, ২ দিন আগে শ্বাসরোধে ওই নারীকে হত্যা করে তার স্বামী পালিয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১১ জুন গোদনাইল বার্মাস্ট্যান্ড সংলগ্ন ডিএনডি খালে ভাসমান ড্রামের ভিতর থেকে অজ্ঞাত এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। ১৬ জুন আটি হাউজিং এলাকার একটি পুকুর থেকে ৬ মাস বয়সী এক অজ্ঞাত মেয়ে শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। এর দু’দিন পর ১৮ জুন একই পুকুর থেকে ৫ বছরের আরোও এক অজ্ঞাত মেয়ে শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। 

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) নজরুল ইসলাম গতকাল শনিবার বিকেলে জানিয়েছেন, ওই তিনজন একই পরিবারের এবং এরা খুনের শিকার হয়েছেন বলে তদন্তে পুলিশ নিশ্চিত হয়েছে। খুনিকে আটকের খুব কাছাকাছি পুলিশ রয়েছে বলেও তিনি জানান। এছাড়া সানজিদার নিহতের ঘটনায় পুলিশ তার স্বামীকে আটকের চেষ্টা করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ