ঢাকা, মঙ্গলবার 26 June 2018, ১২ আষাঢ় ১৪২৫, ১১ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জিতলে ভালো না জিতলে কারচুপি এটা বিএনপির অভ্যাস -কাদের

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি হুমকি দিয়েছে নির্বাচনে কারচুপি হলে সামনের কোনো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, খুলনা, রংপুর এবং  নারায়ণগঞ্জের মত ফ্রি এন্ড ফেয়ার নির্বাচন হবে। নির্বাচনে বিএনপিকে খুশি করতে হলে বিএনপিকে নির্বাচনে জিতানোর গ্যারান্টি দিতে হবে। এছাড়া বিএনপিকে খুশি করানো সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
গতকাল  সোমবার আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, নওফেল, এনামুল হক শামীম, বাহাউদ্দিন নাছিম, আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুর সবুর প্রমুখ।
 কাদের বলেন, বিএনপি সবসময় অহেতুক অভিযোগ, মিথ্যা বানোয়াট কথা বলে ভোটের রেজাল্ট দেয়ার আগ পর্যন্ত বলে যায়। ভোটে জিতলে ভালো না জিতলে কারচুপি হয়েছে এটা বিএনপির পুরানো অভ্যাস।
বিএনপি ২০০১ সালের নির্বাচনে কারচুপি করে জিতেছে বলে উল্লেখ করে বলেন, কারচুপির মাধ্যমে বিএনপি নির্বাচনে জেতার অভ্যাস তাই জনগণের প্রতি বিশ্বাস রাখতে ভালোবাসে না। এ কারণে বিএনপি এখন জনগণের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ।
গাজীপুরে  অত্যন্ত সুষ্ঠু পরিবেশ বিরাজ করছে, খুব শান্তিপূর্ণভাবে গাজীপুরবাসী ভোট দিতে পারবে বলে আমরা আশা ব্যক্ত করেছি। আওয়ামী লীগ জনগণের দল জনগণকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যাবে আমরা কখনো মাগুরা মার্কা নির্বাচন করতে চাই না।
কুমিল্লা, রংপুর এবং খুলনা নির্বাচনের মতো নির্বাচন হবে এজন্য সরকার সকল প্রকার সহযোগিতা করবে বলে আশ্বাস দেন তিনি। আওয়ামী লীগ জনগণের কথা মাথায় রেখে সংবিধান অক্ষরে অক্ষরে পালনে নির্বাচন করে।
ওবায়দুল কদের বলেন, চট্টগ্রাম বিভাগ, সিলেট বিভাগ, রাজশাহী এবং বরিশাল বিভাগে প্রথম ধাপের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হবে ৩০ জুন সকাল সাড়ে ১১ টায়। এতে উপস্থিত থাকবেন ইউনিয়ন পর্যায়ের দলীয় চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ।
দ্বিতীয় ধাপে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হবে ৭ জুলাই সকাল সকাল সাড়ে ১১ টায়। এই ধাপে অংশগ্রহণ করবে ঢাকা বিভাগ, ময়মনসিংহ বিভাগ, রংপুর বিভাগ ও খুলনা বিভাগের অন্তর্গত ইউনিয়নসমূহের দলীয় চেয়ারম্যান, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ