ঢাকা, মঙ্গলবার 26 June 2018, ১২ আষাঢ় ১৪২৫, ১১ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

এ বিজয় গণতন্ত্র ও তুরস্কের সংগ্রামী জনগণের বিজয়

গত রোববারম ২৪ জুন অনুষ্ঠিত তুরস্কের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বর্তমান প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বিপুল ভোট পেয়ে পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ায় এবং তার নেতৃত্বাধীন একে পার্টির জোট পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিপুলভাবে জয়লাভ করায় তাকে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর ও সাবেক এমপি মাওলানা আ.ন.ম. শামসুল ইসলাম।  প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বিপুল ভোট পেয়ে পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ায় এবং তার নেতৃত্বাধীন একে পার্টির জোট পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিপুলভাবে জয়লাভ করায় নিজের পক্ষ থেকে এবং বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে তাকে উষ্ণ অভিনন্দন জানান তিনি। তিনি বলেন, এ বিজয় গণতন্ত্র ও তুরস্কের সংগ্রামী বীর জনগণের বিজয়।
গতকাল সোমবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি আশা প্রকাশ করেন, প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের অভিজ্ঞ, সুযোগ্য ও বিচক্ষণ নেতৃত্বে তুরস্ক আগামী দিনগুলোতে উন্নতি, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যাবে, ইনশাআল্লাহ। তিনি মুসলিম বিশ্বে বিরাজমান বিভিন্ন সমস্যা বিশেষ করে মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের সমস্যা এবং ফিলিস্তিন ও কাশ্মীর সমস্যা সমাধানসহ বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। আমি আরও আশা করি যে, বাংলাদেশের সাথে বিরাজমান ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় ও সুসংহত করার ব্যাপারে তিনি দৃষ্টি দিবেন।
তিনি তার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ূ এবং সার্বিক সাফল্য কামনা করেন এবং বিশ্বের মুসলমানদের খেদমত করার লক্ষ্যে তাকে তাওফীক দেয়ার জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার নিকট দোয়া করেন।
খেলাফত আন্দোলনের অভিনন্দন : তুরস্কের  প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ায় মুসলিম বিশ্বের অবিসংবাদিত নেতা রজব তায়্যিব এরদোগানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন প্রধান, আমীরে শরীয়ত মাওলানা শাহ আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর।
গতকাল সোমবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, আজ ফিলিস্তিন, সিরিয়া, কাশ্মীর, আফগানিস্তান ও মিয়ানমারসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুসলমানদের উপর চলছে গণহত্যা, জুলুম-নির্যাতন এবং প্রতিহিংসার দাবানল। কিন্তু নির্যাতিত মুসলমানদের পক্ষে কথা বলার, তাদের পাশে দাড়াবার কেউ নেই। আমি আশা করি মুসলমানদের উপর জুলুম-নির্যাতন খুন-রাহাজানি বন্ধ করতে এরদোগান সাহসী ভুমিকা পালন করে যাবেন।  প্রেসিডেন্ট এরদোগান তুরস্কের  প্রেসিডেন্ট পুনর্র্নিবাচিত হওয়ায় তুরস্ক অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাবে। ইনসাফ, ন্যায় বিচার ও জনগণের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে।
মাওলানা আতাউল্লাহ তুরস্কের সংসদে  খেলাফত শাসন ব্যবস্থার মাধ্যমে কুরআন-সুন্নাহর শাসন কার্যকর করতে  প্রেসিডেন্ট এরদোগানের প্রতি আহবান জানান এবং তার সুসাস্থ ও নেক দীর্ঘ হায়াত কামনা করে মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করেন।
ছাত্রশিবিরের অভিনন্দন : তুরস্কের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বর্তমান প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বিপুল ভোট পেয়ে পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ায় এবং একে পার্টির নেতৃত্বাধীন জোট পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিপুলভাবে জয়লাভ করায় রজব তাইয়্যেব এরদোগানকে অভিনন্দন জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। গতকাল সোমবার এক যৌথ অভিনন্দন বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, গত ২৪ জুন তুরস্কে অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্ট নির্বাচন বিশ্বব্যাপি বিশেষ করে মুসলিম দেশ গুলোরও আগ্রহের বিষয় ছিল। এ নির্বাচনে বর্তমান প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বিপুল ভোট পেয়ে বিজয়ের ধারাকে অব্যাহত রেখে পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। একই সাথে তার নেতৃত্বাধীন একে পার্টির জোট পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিপুলভাবে জয়লাভ করেছেন। এই অবিস্বরণীয় বিজয়ে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের পক্ষ থেকে আমরা প্রেসিডেন্ট জনাব রজব তাইয়্যেব এরদোগান ও তুরস্কের জনগণকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি। আমাদের বিশ্বাস এ বিজয় তিনি মানবতার জন্য উৎসর্গ করবেন, অপরের দু:খকষ্টে বিশেষ করে নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উৎসাহ যোগাবে। বিশ্ব মুসলিমের ঐক্যর জন্য কাজ করবেন। দেশের জনগণকে সাথে নিয়ে আধুনিক ও ঐক্যবদ্ধ তুরস্ক প্রতিষ্ঠা করবেন।
নেতৃদ্বয় বলেন, এ বিজয় গণতন্ত্র ও তুরস্কের সংগ্রামী বীর জনগণের বিজয়। তুরস্কের জনগণের সাথে আমরাও বিশ্বাস করি, প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের অভিজ্ঞ, সুযোগ্য ও বিচক্ষণ নেতৃত্বে তুরস্ক আগামী দিনগুলোতে উন্নতি, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যাবে। একই সাথে মুসলিম উম্মাহ প্রত্যাশা করে তিনি মুসলিম বিশ্বে বিরাজমান বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবেন। বিশেষ করে মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের সমস্যা এবং ফিলিস্তিন ও কাশ্মীর সমস্যা সমাধানসহ বিশ্বে শান্তি প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। বাংলাদেশের সাথে বিরাজমান ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় ও সুসংহত করার ব্যাপারে তিনি দৃষ্টি দিবেন।
আমরা তুরস্কবাসীর ঐক্য সুখ, শান্তি ও অগ্রগতি প্রত্যাশা করছি। একই সাথে প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু ও সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ