ঢাকা, মঙ্গলবার 26 June 2018, ১২ আষাঢ় ১৪২৫, ১১ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মে মাসে রাজনৈতিক সন্ত্রাস

মুহাম্মদ ওয়াছিয়ার রহমান : রাজনৈতিক মাঠে মে মাসে সরব আলোচনা ছিল কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে নানাবিধ নাটক চলছে। মাদক কারবার দমনের নামে ক্রসফায়ার ছিল অন্যতম আলোচিত ইস্যু। মে মাসে ১০৪টি রাজনৈতিক ঘটনার তথ্যে নিহতের সংখ্যা ১৫। এই ১৫ জনের ৪ জনই খুন হয় আওয়ামী লীগের হাতে, ছাত্রলীগের হাতে ২ ও ইউপিডিএফ-এর হাতে ৯ জন। এ মাসে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতায় প্রাপ্ত তথ্যে আহত হয় ১৫২ জন এবং গ্রেফতার অনেক বেশী হলেও ১৯৫ জনের খবর পাওয়া গেছে বাকীদের তথ্য প্রকাশিত হয়নি, গ্রেফতারকৃতরা অধিকাংশই বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী এবং দন্ডপ্রাপ্ত ৪ জন, এই ৪  জনের আওয়ামী লীগের ১, যুব লীগের ২ ও জেএমবির ১ জন। মে মাসে প্রাপ্ত তথ্যে নিহত যারা- (১) নরসিংদীর রায়পুরার দলীয় কোন্দলে বাঁশগাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক খুন হয়, (২) যশোর সদরে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে তরুণ লীগ নেতা শেখ মনিরুল ইসলাম নিহত হয়, (৩) নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে আওয়ামী লীগের হাতে পুলিশ কনষ্টেবল রাসেল মাহমুদ সুমন নিহত ও (৪) নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কলেজ ছাত্র হোসেন আহমেদ রুবেল হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা এবং মুড়াপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদসহ ১৪ জনকে আসামী করা হয়, (৫) ফরিদপুর সদরে বাবলু হত্যা মামলায় ছাত্রলীগ নেতা আটক ও (৬) শরীয়তপুরের ডামুড্যায় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে নির্মাণ শ্রমিক মোস্তফা গান্ধাকে হত্যার অভিযোগ এবং (৭) রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ(প্রসিত)-এর হাতে জেএসএস-এমএন কেন্দরীয় সহ-সভাপতি ও নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শক্তিমান চাকমা গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়, (৮) রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে ইউপিডিএফ (প্রসিত) গ্রুপের হাতে ইউপিডিএফ (বার্মা) গ্রুপের প্রধান তপন জ্যোতি চাকমা ওরফে বার্মা, (৯) সুজন চাকমা, (১০) টনক চাকমা, (১১) সেতু লাল চাকমা ও (১২) সজিব খুন হয়, (১৩) রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে ইউপিডিএফ-এর (গণতান্ত্রিক ও প্রসিত) গ্রুপের বন্দুক যুদ্ধে অটল চাকমা, (১৪) স্মৃতি চাকমা ও (১৫) সঞ্জীব চাকমা নিহত হয়।
আওয়ামী লীগ ঃ ৩ মে নরসিংদীর রায়পুরার দলীয় কোন্দলে বাঁশগাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক খুন হয়। নিহতের ছেলে আওয়ামী লীগ কর্মী জাকির হোসেনকে প্রধান আসামী করে ৩০ জনের নামে মামলা দায়ের করে। পুলিশ জাকির হোসেনসহ ৩ জনকে আটক করে। নরসিংদীর রায়পুরায় আওয়ামী লীগ মির্জাচর ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ মিয়ার ছেলে ফারুকুল ইসলাম ও তার সমর্থকরা প্রতিপক্ষ ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি জাফর ইকবাল মানিক ও তার সমর্থিতদের বাড়ি ঘরে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে। ৪ মে নাটোরের গুরুদাসপুরে নাজিরপুর এলাকায় কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সাথী বেগম নামে এক মহিলাকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দেয় আওয়ামী লীগ নাজিরপুর ইউনিয়ন সভাপতি আইউব আলীর ভাই আওয়ামী লীগ কর্মী জাহাঙ্গীর আলম। ৬ মে যশোরের বাঘারপাড়ায় বাসুয়াড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা আবু সাইদ সরদারের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা করে বাজারের ফল ব্যবসায়ী আব্দুর কাদের ভূঁইয়া। ৭ মে পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সরকারী হাতেম আলী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিনকে বরখস্ত করার পর বরিশাল শিক্ষা বোর্ড এডহক কমিটি গঠন করে। উল্লেখ্য, আগেই স্বার্থ সংশ্লিষ্ট দ্বন্দ্বে আওয়ামী লীগ উপজেলা সহ-সভাপতি ও সাবেক বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদ সভাপতি আরিফ-উল হক প্রধান শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখস্ত করে। ৮ মে টাঙ্গাইলের একটি আদালত ছাত্রলীগ নেতা আমিনুর রহমান খান বাপ্পি হত্যা মামলায় টাঙ্গাইল পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা জামিলুর রহমান মিরন এবং বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর ছোট ভাই আজাদ সিদ্দিকী পালাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে। নরসিংদীর মধাবদীতে অনন্তরামপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ। চরদিঘলদী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়াী লীগ সভাপতি আলমগীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক চাঁন মিয়া গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে মোসারিমা, মজিবুর রহমান, দাইন, মমিন মিয়া, মোক্তার হোসেন, নাজিম উদ্দিন, রিতা, আলী হোসেন, দেলোয়ার, ইসমত আকন্দ, মোহাম্মদ আলী, বিল্লাল মিয়া, শাহীনুর, আতাবর, আব্দুল মালেক মিয়া, হাবিব মিয়া, হানিফা, শুক্কুর আলী, মোবারক, শ্রীফর আলী ও গোলজারসহ ৪০ জন আহত হয়।
৯ মে কক্সবাজারের চকরিয়ায় মহেশখালিয়া পাড়ায় বিরোধ পূর্ণ জমি দখল করতে গিয়ে ফাইতং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকসহ ৪ জনকে আটক করে পুলিশ। ১০ মে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ককোয়া বিচ সিটির কোর্টিয়ার্ড বাই ম্যারিয়েট নন-স্মোকিং হেটেলের ৭২০নং কক্ষে নেশা করার পর জ্বলন্ত সিগারেটের আগুনে কার্পেট পুড়ে ফেলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও ময়মনসিংহ-২ আসনের এমপি শরীফ আহমেদকে ৪৫০ ডলার জরিমানা করা হয়। ১২ মে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগরে বাড়ৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ ইউনিয়ন সহ-সভাপতি সেলিম তালুকদারের বিরুদ্ধে বাড়ি-ঘরে হামলা ও লোকদের মারধর করার অভিযোগ ওঠে। গত ১৩ এপ্রিল এই হামলায় মোমেলা বেগম, শিউলী আক্তার, রনি বেগম, শাহনাজ, ইউসুফ আমীন, আল-আমিন, মহিউদ্দিন, মাজেদা, শেখ সুলতান আলী, মুক্তা, মাজেদা ও আলী নূর আহত হয়। ১৩ মে মানিকগঞ্জের ঘিওরে শ্রীবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচন নিয়ে প্রধান শিক্ষক নাছিমা খানমকে বড়বাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শামচুল আলম রওশন, আবুল বাশার, শামীম, আব্দুল হাই ও আব্দুল আজিজসহ ৩০-৩৫ জন হামলাসহ লাঞ্ছিত করে। যশোর শহরে পালবাড়ি ভাস্কর্য মোড়ে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে তরুণ লীগ নেতা শেখ মনিরুল ইসলাম নিহত এবং সন্তোষ ঘোষ নামে অপর একজন আহত হয়। আওয়ামী লীগ নেতা শাহীন চাকলাদার ও অপর নেতা কাজী নাবিল এমপি গ্রুপের দ্বন্দ্বে এই হত্যাকান্ড ঘটে। নিহত মনিরুল ইসলাম আওয়ামী লীগ নেতা শাহীন চাকলাদার গ্রুপের সমর্থক। ঢাকার আশুলিয়ায় যুব মহিলা লীগ ধানসোমা ইউপি নেত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা মামলার আসামী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মোস্তাক আহমেদ ও তার লোকজন মামলার বাদীকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়।
১৫ মে খুলনা সিটি করপোরশেন নির্বাচনে ২৮৯ কেন্দের মধ্যে ৯৫টি কেন্দের আওয়ামী লীগের ব্যাপক ভোট কাটাকাটি, ব্যালট ছিনতাই, বিএনপি, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন, জাপা ও জামায়াতের এজেন্টদের বের করে দেয়ার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়। আওয়ামী লীগের লোকজন রূপসা বহুমূখী উচ্চবিদ্যালয় কেন্দেরর ৫নং বুথে সিরিয়াল নং ০০৪৫৮৪০১-০০৪৫৮৫০০ পর্যন্ত ১০০টি ভোট পোলিং অফিসার উজ্জ্বল কুমার পালের নিকট থেকে জোর করে কেড়ে নিয়ে সীল মেরে বাক্সে ঢুকাতে চেষ্টা করলে উজ্জ্বল তাতে বাধা দেয়। পাইওনিয়ার গার্লস স্কুল কেন্দের বিএনপির এজেন্টদের আটকিয়ে রাখে আওয়ামী লীগের লোকজন। সোহরাওয়ার্দী কলেজ, আহসান উল্লাহ কলেজ কেন্দের বিএনপির এজেন্টদের বের করে দিয়ে ব্যালট বাইরে এনে ভোট দেয়। ২৯নং ওয়ার্ডে আগের রাতে বিএনপির সমর্থকদের বাড়িতে গিয়ে হুমকি দিয়ে আসে। মতিয়াখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দের সাংবাদিকরা গেলে তাদের বলা হয়- কাউন্সিলর প্রার্থী ও মহানগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রাসেল ভাই সালাম দিয়েছে, আপনারা এখানে থাকলে আমাদের ডিস্টার্ব হবে। আপনারা তাড়াতাড়ি চলে যান’। রূপসা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দের থেকে বিএনপির এজেন্ট সেলিম কাজীকে মারধর করে বের করে দেয় আওয়ামী লীগের লোকজন। ইকবালনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দের প্রিজাইডিং অফিসার খলিলুর রহমানকে আটকিয়ে রেখে ভোট কাটে লীগ কর্মীরা। জিলা স্কুল কেন্দের আলী আকবরকে মারধর করে লীগের লোকজন। খালিশপুরের নূরানী তা’লিমুল মাদরাসায় সিরাজ ও তার ভাই আলমকে মারধর করে এবং নির্বাচন কমিশনের একজন পর্যবেক্ষণ কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করে। ঝালকাঠি সদরে পোনাবালিয়া ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ব্যাপক ভোট কাটাকাটি, জাল ভোট প্রদান ও এজেন্টদের বের করে দেয়ায় বিএনপি নির্বাচন বর্জন করে নতুন নির্বাচন দাবি করে। শরীয়তপুরের জাজিরায় বিশালপুর মুলাই বেপারীকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দর করে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ১০টি বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটাপাট করা হয়। আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল কুদ্দুস বেপারী ও আবু তাহের সরদার গ্রুপের মধ্যে এই সংষর্ঘ হয়। কিশোরগঞ্জের ভৈরবে চন্ডিবের গ্রামের প্রবেশ পথের জিয়া তোরণটি ভেঙ্গে ফেলে আওয়ামী লীগের কর্মীরা। এলাকাটি জিয়ানগর হিসাবে পরিচিত, ১৯৭৯ সালে এই তোরণটি নির্মান করা হয়। ১৭ মে জয়পুরহাটের কালাইয়ে হুমকি উপেক্ষা করে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় বগুড়া থেকে প্রকাশিত দৈনিক মুক্তজমিন উপজেলা প্রতিনিধি ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়ান নিউজ বিডির জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি মোছাদ্দেকুল ইসলাম চঞ্চলকে মারপিট করে আওয়ামী লীগ ক্যাডার ও আব্দুল হাকিম হত্যা মামলার আসামী ইমরান খান মিঠু। ১৯ মে শেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যক্রম ও নির্বাচনী এলাকা থেকে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধূরী এমপিকে প্রত্যাহারের সুপারিশ করে জেলা কার্য নির্বাহী কমিটি। কমিটি শেরপুর-৩ আসনের এমপি এ.কে.এম ফজলুল হকসহ ৫ জনকে জেলা কমিটি থেকে বাদ দেয়ার সুপারিশ এবং নলিতাবাড়ি উপজেলা কমিটি বাতিল করে। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে সাদিপুর ইউনিয়ন বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা বাবু প্রধানকে দুই শতাধিক ইয়াবাসহ আটক করে পুলিশ। ২০ মে নারায়নগঞ্জের আড়াইহাজারে আওয়ামী লীগের হাতে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পুলিশ কনস্টেবল রুবেল মাহমুদ সুমন নিহত হলে ৮ মাস পর ময়না তদন্তের জন্য আদালতের আদেশে লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ১ সেপ্টেম্বর কুরবানীর ঈদের আগের দিন তাকে হত্যা করা হয়। নিহতের ভাই কামাল হোসেন আওয়ামী লীগ নেতা ও কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম ও যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক কামালসহ ৩২ জনের নামে মামলা দায়ের করে। বিলম্বে রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা প্রকাশ পাওয়ায় এ মাসের কলামে যুক্ত করা হলো। শেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জাতীয় সংসদের হুইপ আতিউর রহমান আতিক এমপিকে তার দলীয় পদ থেকে অপসারণের দাবিতে শহরে ঝাড়ু মিছিল বের করে দলীয় একটি অংশ। ২১ মে জামালপুরের সরিষাবাড়িতে তারাকান্দি এলাকায় এক ইফতার মাহফিলে আওয়ামী লীগে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী উজ্জ্বল, সুমন ও ফারুক আহত হয়। আওয়ামী লীগে নেতা ডাঃ মুরাদ হাসান ও অপর নেতা রফিক গ্রুপের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ভিজিএফ-এর চাল বিতরণে অনিযমের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে দৈনিক সমকালের গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধি এনামুল হককে মারধর করে আওয়ামী লীগ নেতা ও তালুককানুপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান আতিক। ২২ মে নাটোরের গুরুদাসপুরে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলে নাজিরপুর হাটে টোল বন্ধ করে দেয় একপক্ষ। আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল কুদ্দুস এমপি গ্রুপ এবং উপজেলা সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র শাহ নেওয়াজ গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্বে এই ঘটনা ঘটে। ২৩ মে পিরোজপুরের ইন্দরকানীতে বালিপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা কবির হোসেন বয়াতী বালিপাড়া বাজারে রেনু বেগম নামে এক মহিলাকে পিটিয়ে জখম করে। মহিলার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা ধার নিয়ে না দিয়ে আরো ৫০ হাজার টাকা ধার চায়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তাকে মারপিট করে। নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ইফতার পার্টির একাংশের বয়কট। এমপি শামীম ওসমান প্রভাবিত এই ইফতার পার্টিতে জেলা সহ-সভাপতি ও নারায়নগঞ্জের মেয়র সেলিনা হায়াত আইভিকে দেখা হয়নি। ২৭ মে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কলেজ ছাত্র হোসেন আহমেদ রুবেল হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা ও মুড়াপাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদসহ ১৪ জনকে আসামী করা হয়। আইপিএল নিয়ে বাজি ধরার জেরে সন্ত্রাসী হামলার পর সুরুজ, নয়ন ও কাজলসহ ২৬ জনকে আসামী করা হয়। ২৯ মে বরিশালের মুলাদী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক তরিকুল হাসান খান মিঠুর বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেনকে লাঞ্ছিত করাসহ নানা অভিযোগের তদন্ত করছে বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শহীদুজ্জামান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ