ঢাকা, বুধবার 27 June 2018, ১৩ আষাঢ় ১৪২৫, ১২ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিশ্বকাপে প্রথম গোলশূন্য ড্র

কামরুজ্জামান হিরু: ‘সি’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠলো সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। জিতলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সম্মান, হারলেও কোন ক্ষতি নেই। এমন সমীকরণ সামনে রেখেই গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলো ফ্রান্স ও ডেনমার্ক। গ্রুপ পর্বের প্রথম দুটি ম্যাচ জিতে ফ্রান্স (অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ ও পেরুকে ১-০) এবং একটি জয় ও একটি ড্র নিয়ে ডেনমার্ক (পেরুকে ১-০ ও অস্ট্রেলিয়ার সাথে ১-১ ড্র) বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলা নিশ্চিত করে রেখেছিল। তাই ‘সি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচটি ফ্রান্স ও ডেনমার্কের জন্য ছিল শীর্ষস্থান দখলের।পয়েন্ট টেবিলের অবস্থান অনুযায়ি প্রতিপক্ষ ডেনমার্কের চেয়ে এক পয়েন্টে এগিয়ে থাকায় নির্ভার হয়েই মাঠে নামে ফ্রান্স। গ্রুপ সেরা হওয়ার জন্য শেষ ম্যাচে ডেনমার্কের বিপক্ষে ড্র-ই যথেষ্ট দিদিয়ের দেশমের দলের কাছে। অন্যদিকে পরের রাউন্ডে যাওয়ার জন্য ডেনমার্কের ও এক পয়েন্ট পেলেই চলবে কিন্তু গ্রুপ সেরা হওয়ার জন্য তাদের জিততেই হবে। এমন সমীকরন সামনে রেখে একাদশে অনেক পরিবর্তন এনেছেন ফ্রান্স কোচ দেশম। দলের মিডফিল্ডের প্রধান কা-ারি পগবাকে বেঞ্চে রেখেছেন এই ম্যাচে। তাছাড়া এমবাপ্পে, উমতিতি এবং অধিনায়ক লরিসকেও বিশ্রামে রেখেছিলেন। ইউরোপের দু‘দলের লড়াইটি ছিলো নিষ্প্রান।
নিয়মিত একাদশের বাইরে ফ্রান্সের হয়ে খেলতে নেমেও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। ম্যারম্যারা ম্যাচের প্রথম আক্রমন দেখা যায় ২৯ মিনিটে। ডেনমার্কের ডেলানেয় গোলের সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ হন। ৩৩ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে দূরপাল্লার শট নিয়েছিলেন ডেম্বেলে। কিন্তু লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে কেবল হতাশাই বাড়ে। ম্যাচের প্রথমার্ধের একদম শেষ সময়ে গ্রিজম্যান ফাঁকা জায়গায় বল পেলেও লাইন্সম্যান অফসাইডের বাঁশি বাজান। প্রথমার্ধে দু’দল মিলে মাত্র ১টি শট গোলমুখে নিতে পেরেছেন। গোলশূন্য অবস্থাতেই শেষ হয় প্রথমার্ধ।
দ্বিতীয়ার্ধেও দু’দলের কাছ থেকে তেমন আক্রমণাত্মক খেলা উপহার পাওয়া যায়নি। মনে হচ্ছিল যেন, ড্র করার জন্যেই নেমেছে তারা। ৫৪ মিনিটে ডেনমার্কের এরিকসন দূরপাল্লার শট নিলেও গোলবারের বাইরে দিয়ে চলে যায়।ম্যাচে একদমই নিস্প্রভ ছিলেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ তারকা আন্তনিও গ্রিজম্যান। ৮২ মিনিটে ফেকিরের দূরপাল্লার শট গোলবার ঘেষে বাইরে চলে যায়। ম্যাচে আর কোন গোলের সুযোগ তৈরি না হলে রাশিয়া বিশ্বকাপ পায় প্রথমবারের মতো গোলশূন্য ড্র একটি ম্যাচ। ৭ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ সেরা হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠলো দেশমের ফ্রান্স। আর রানার্সআপ হয়ে ডেনমার্কও চলে গেল পরের রাউন্ডে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ