ঢাকা, বুধবার 27 June 2018, ১৩ আষাঢ় ১৪২৫, ১২ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কুষ্টিয়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই অপহরণকারী নিহত

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার মিরপুরে পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নাইম মালিথা(২৭) ও জোয়ার আলী(২৮) নামের দুই অপহরণকারী নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবি নিহতরা চিথলিয়া গ্রামের স্কুল ছাত্র দেব দত্তকে অপহরণ এবং হত্যার প্রধান আসামী। গতকাল মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার চিথলিয়া এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে। নিহত নাইম চিথলিয়া গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে এবং জোয়ার আলী একই গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে।
এ ঘটনায় মিরপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) লাল চাঁদ এবং সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সাইফুল ইসলামসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। আহতদের মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ২টি বিদেশী পিস্তল, ৯ রাউন্ড গুলী ও দুটি রামদা উদ্ধার করেছে।
মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান গত ৯ জুন (শনিবার) সকালে বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে অপহরণ হয় দেবদত্ত। এরপর গত ২৫জুন দুপুরে একই গ্রামের মালিথাপাড়ার নাইমের বাড়ির সেফটিক ট্যাংক থেকে বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে নাইম মালিথা এবং জোয়ার আলীকে আটক করে পুলিশ। পরে তাদের দেয়া তথ্য ভিত্তিতে নাইম এবং জোয়ারকে নিয়ে বাকি আসামীদের ধরতে চিথলিয়া গ্রামে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় চিথলিয়া ইটভাটার কাছে পৌঁছলে সেখানে ওত পেতে থাকা অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলী ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলী ছুড়লে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। উভয় পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে নাইম এবং জোয়ার গুলীবিদ্ধ হয়। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন।
উল্লেখ্য, গত সোমবার (২৫ জুন) বেলা ২টায়  কুষ্টিয়ার মিরপুরে অপহরণের ১৭দিন পর দেব দত্ত (৯) নামে এক স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের চিথলিয়া  গ্রামের মালিথাপাড়ার সৌচাগারের মধ্য থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত দেব দত্ত উপজেলার চিথলিয়া গ্রামের পবিত্র দত্তের ছেলে ও চিথলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ