ঢাকা, বুধবার 21 November 2018, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

জিয়া অরফানেজ মামলায় খালেদার খালাস চেয়ে আপিলের শুনানি ৩ জুলাই

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজা থেকে খালাস চেয়ে দায়ের করা আপিলের শুনানি আগামী ৩ জুলাই ধার্য করেছে হাইকোর্ট।

আজ বুধবার সকালে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতির মুস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন ধার্য করেন। একইসঙ্গে আগামীকালের মধ্যে বেগম জিয়ার আইনজীবীদের মামলার পেপারবুক সরবরাহের নির্দেশ দেয় আদালত।

আজ খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এ মামলায় শুনানির প্রস্তুতি জন্য সময় চান। অপরপক্ষে দুদকের আইনজীবী আজই শুরু করার আবেদন জানালে আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে উপরোক্ত সময় নির্ধারণ করে।

খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, এজে মোহাম্মদ আলী ও জয়নুল আবেদীন। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম।

আদালত থেকে বের হয়ে মওদুদ আহমদ সাংবাদিকদের জানান, "এ মামলায় দীর্ঘ সময় পার হয়ে গেছে। আমরা এখনো পেপারবুক পাইনি। যে কারণে প্রস্তুতিও নিতে পারিনি। তাছাড়া আপিলের রায়ের লিখিত কপি পেতেও এক মাস সময় লেগে গেছে। আমরা আপিলের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ আবেদন করব। আশা করি আদালত আমাদেরকে এ বিষয়ে প্রস্তুতি নেয়ার মতো সময় দিবেন।"

এ সময় জয়নুল আবেদীন বলেন, "এটি একটি পলিটিক্যাল মামলা। রাজনৈতিক কারণে সরকার ও দুদক এর আপিল শুনানির জন্য তাড়াহুড়ো করছে।"

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সাজা দিয়ে জেলে পাঠায় আদালত। এর পর থেকে তিনি পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন।

এ মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া চার মাসের জামিন বহাল রেখে আপিল বিভাগ ১৬ মে রায় দেন। রায়ে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে পাঁচ বছরের দণ্ডের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে করা খালেদা জিয়ার আপিল নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ