ঢাকা, বৃহস্পতিবার 28 June 2018, ১৪ আষাঢ় ১৪২৫, ১৩ শাওয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মুসলিমদের ওপর ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখলো সুপ্রিম কোর্ট

ট্রাম্পের মুসলসান বিরোধী নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

২৭ জুন, দ্য গার্ডিয়ান : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারিকৃত মুসলিম নিষেধাজ্ঞার পক্ষে আবারও রায় দিলো দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া রায়ে মুসলিম প্রধান দেশগুলোর নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা জারি করে ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ বহাল রাখা হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় সাত মুসলিম প্রধান দেশ ইরান, লিবিয়া. সিরিয়া, ইয়েমেন, সোমালিয়া ও চাদের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার নাগরিকরা যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ করতে পারবেন না। নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছেন ভেনেজুয়েলার সরকারি কর্মকর্তারাও। এর আগে ৬টি মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলেও সুপ্রিমকোর্ট বাধা দেয়। ইরান, লিবিয়া, ইয়েমেন, সিরিয়া ও সোমালিয়ার নাগরিকদের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলো ট্রাম্প প্রশাসন। দেশগুলো মুসলিম প্রধান হওয়ায় এই পদক্ষেপকে ‘মুসলিম নিষেধাজ্ঞা’ বলা হচ্ছিলো। তবে নতুন তিনটি দেশ যুক্ত হওয়ায় এই নিষেধাজ্ঞা ধারা পাল্টায়নি বলে মনে করে সংশ্লিষ্ট গ্রুপগুলো।  

২০১৭ সালের জানুয়ারিতে দায়িত্ব নেওয়ার এক সপ্তাহ পর ট্রাম্প এবিষয়ে প্রথম পদক্ষেপ নেন। দুই দফা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারির পর আদালতের বাধার মুখে পড়েন ট্রাম্প। সেই পদক্ষেপের বিষয়ে তৃতীয় ধাপের আইনি লড়াই চলে।

গত বছরের এপ্রিলে এই বিষয়ে শুনানির পর জুনে সুপ্রিম কোর্ট এক রুলিং দেয়। এতে বলা হয়, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা ফেডারেল অভিবাসন আইন ভঙ্গ করছে। একই সাথে মার্কিন সংবিধানের ধর্মীয় বৈষম্য নিরসন ধারার সঙ্গে সাংঘর্ষিক এই নিষেধাজ্ঞা। এরপর সেপ্টেম্বরে ট্রাম্প ছয়টি মুসলিম দেশ চাদ, ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া এবং ইয়েমেনের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে সাম্প্রতিক আদেশ জারি করেন ট্রাম্প। সর্বশেষ মঙ্গলবার (২৬ জুন) ট্রাম্প ও হাওয়াই আদালতের রায় নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের শুনানিতে ৫-৪ এ জয় পায় ট্রাম্প প্রশাসন। তবে বিরোধিতাকারীরা বলছেন, এতে করে যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়নি। বরং বৈষম্য তৈরি হয়েছে। ধর্মীয় দিক থেকে বৈষম্যের শিকার হয়েছেন মুসলিমরা। আইনজীবী নিল কাতইয়াল বলেন, তিনি এই রায়ে হতাশ। তবে ট্রাম্প নিজেকে জয়ী মনে করলে ভুল করবেন। সবসময়ই অধিকারের জন্য লড়াই করে যাবেন বলেও জানান নিল। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ